Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১০ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

শেষ শূন্যস্থানটা খুব সম্ভবত নিউজিল্যান্ডই পূরণ করবে

এই লেখা যখন লিখছি ততক্ষণে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয়ের রানটা তুলে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া। একই সঙ্গে এ বারের বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় যুদ্ধটাও চূড়ান্ত ক

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়
২১ মার্চ ২০১৫ ০৩:৫৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
ঘুমন্ত দৈত্য জাগবেন কি? শুক্রবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রাক্টিসে ক্রিস গেইল। ছবি: এএফপি।

ঘুমন্ত দৈত্য জাগবেন কি? শুক্রবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রাক্টিসে ক্রিস গেইল। ছবি: এএফপি।

Popup Close

এই লেখা যখন লিখছি ততক্ষণে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয়ের রানটা তুলে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া। একই সঙ্গে এ বারের বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় যুদ্ধটাও চূড়ান্ত করে ফেলল মাইকেল ক্লার্করা। সিডনিতে সেমিফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হয়ে। ম্যাচটা গোটা দুনিয়ার কোটি কোটি মানুষ দেখবে। তবে আমার মতে টুর্নামেন্টে এখনও পর্যন্ত তিনটে যোগ্য দলই শেষ চারে পৌঁছেছেদক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত আর অস্ট্রেলিয়া।

এ বার শেষ দলের জন্য অপেক্ষা। ওয়েলিংটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের আজ মহড়া নেবে নিউজিল্যান্ড। আমার কাছে যেটা অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়া বনাম পাকিস্তান ম্যাচের মতোই। কেননা নিউজিল্যান্ড ভারতের মতোই দুর্দান্ত ভাবে নক আউটে উঠেছে। একটা ম্যাচেও হারেনি এবং কাগজে-কলমেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের চেয়ে অনেক ভাল টিম। তার উপর ম্যাকালামরা কোয়ার্টার ফাইনালটা খেলছে ওয়েলিংটনে। যেটাকে গত কয়েক বছরে ওরা নিজেদের একটা দুর্গ বানিয়ে তুলেছে। শেষ কয়েক বছরে ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ড কোনও ম্যাচ হারেনি। যাদের হারিয়েছে তাদের মধ্যে মহাপরক্রমশালী অস্ট্রেলিয়াও আছে। সে জন্য আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে জিতে ওয়েলিংটন ছাড়তে হলে পাহাড়প্রমাণ উঁচু পারফরম্যান্স দেখাতে হবে। খেলাধুলোয় কোনও কিছুই যে অসম্ভব নয়, আমি সেটাও জানি। তা সত্ত্বেও সেমিফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের চেয়ে নিউজিল্যান্ডকে দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে এ বারের বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত খুব সাদামাঠা দেখিয়েছে। দুর্বল দলের কাছে হোঁচট খেয়ে ওরা টুর্নামেন্টটা শুরু করেছিল। তার পরেও মোটেই ওদের তেমন ভাল ছন্দে দেখায়নি। কিন্তু একই সঙ্গে ক্যারিবিয়ানদের খাটো করে দেখাটাও বিরাট বিরাট ভুল হবে। ওরা আজ নিউজিল্যান্ডের খুব বড় মাঠে খেলছে না। আর যদি ওদের ব্যাটে-বলে ঠিকঠাক হতে থাকে তা হলে তো মাঠটাকে আরওই ছোট দেখাবে। ক্যারিবিয়ানদের হয়ে এখনই ক্রিস গেইলের উঠে দাঁড়ানোর আসল সময়। জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ছাড়া ওকে এই টুর্নামেন্টে খুবই সাধারণ লেগেছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ তাকিয়ে আছে ওর একটা ভাল পারফরম্যান্সের দিকে। বড় ম্যাচে গেইলকে দেখাতে হবে।

Advertisement

ওরা এই টুর্নামেন্টে এক জন বাড়তি বোলার হিসেবে কেমার রোচকে খেলাচ্ছে। কিন্তু সেটা নিয়ে বোধহয় আজ ওদের ভাবা দরকার। কারণ গেইলের উপর থেকে চাপ কমাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের টপ অর্ডারে আরও একজন উঁচুদরের ব্যাটসম্যান রাখা হয়তো বেশি দরকার। গেইল হয়তো ক্রিজে গিয়ে ভাবছে, আমি যদি আগুনে ব্যাটিং না করি তা হলে দল সমস্যায় পড়বে। আর ওর এই ভাবনাটাই ওকে আরও বেশি চাপে ফেলে দিচ্ছে। ডোয়েন ব্র্যাভোর চোটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মিডল অর্ডার ব্যাটিংকে আরও দুর্বল দেখাচ্ছে। যে জায়গাটায় ওদের থেকে বেশ একটু জমাট ব্যাটিং দেখাতে পাওয়া জরুরি।

কিউয়িদের সে দিক দিয়ে বলতে গেলে তেমন কোনও দুশ্চিন্তার জায়গা নেই। টপ অর্ডার দারুণ টাচে আছে। অস্ট্রেলিয়ার মতোই ওদের সবচেয়ে বড় শক্তি ব্যাটিং লাইন আপের গভীরতা। আট নম্বরে ভেত্তোরির নামাতেই যেটা প্রমাণিত। আর অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে এসে নিজের শেষ সিরিজে ওয়ান ডে-তে নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী এই মুহূর্তে আছেও যেন জীবনের সর্বোচ্চ ফর্মে!

নিউজিল্যান্ডের বোলিংও অসাধারণ। ঘরের মাঠের পরিবেশকে দুর্দান্ত ভাবে কাজে লাগাচ্ছে ওদের দুই ফাস্ট বোলার ট্রেন্ট বোল্ট আর টিম সাউদি। বিশেষ করে বোল্ট ওয়েস্ট ইন্ডিজের টপ অর্ডারের সামনে বিরাট আতঙ্ক হয়ে উঠতে পারে।

আমার চার সম্ভাব্য সেমিফাইনালিস্টের নাম আগেই বলেছিলাম। তাদের মধ্যে তিনটে টিম আমাকে সত্যি প্রমাণ করেছে। এখন নিউজিল্যান্ডের সময় শেষ শূন্যস্থানটা পূরণ করার। এবং সেটা হলে দু’টো দুর্দান্ত সেমিফাইনাল লাইন আপ তৈরি হবে। তার একটায় নিউজিল্যান্ড ঘরের মাঠে খেলবে। অকল্যান্ডে। যেখানে সত্যি বলতে ক্যারিবিয়ানদের চেয়ে বেশি ভাল দেখাবে কিউয়িদের!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement