ডায়মন্ড হারবার কেন্দ্রের ৩৩৩ বুথে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আড়াই লক্ষ ‘লিড’-এ অস্বাভাবিক কিছু দেখছেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, এই কেন্দ্রে সংখ্যালঘুরা অভিষেককে ঢেলে ভোট দিয়েছেন। তাই এই ফল হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এবিপি আনন্দ-এ এক সাক্ষাৎকারে অভিষেকের নির্বাচনী জয় সম্পর্কে প্রশ্নে প্রথমেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘সব ব্যাপারে অভিষেক-অভিষেক করবেন না। ভাল লাগে না। এ ব্যাপারে কিছু জিজ্ঞাসা করার থাকলে নির্বাচন কমিশনকে করুন। ভোট তো করেছে কমিশন। সেখানে পুলিশ অফিসারদেরও কমিশন বদলে  দিয়েছিল।’’ তারপরই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘ডিএম, এসপি-কে কমিশন বদলি করে দিয়েছে। বাইরে থেকে লোক এনেছে।’’

ডায়মন্ড হারবার কেন্দ্রের নির্বাচন নিয়ে বিরোধীদের অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। নির্বাচনের আগে থেকেই এই কেন্দ্র নিয়ে কমিশনেও অভিযোগ জানিয়েছেন তাঁরা। শুধু তাই নয়, নির্বাচনের ফলেও অসঙ্গতির অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে বলে সরব তাঁরা। বিরোধীদের অভিযোগের মূল ছিল, ডায়মন্ড হারবারে ৩৩৩ টি বুথেই তৃণমূল প্রার্থী হিসাবে অভিষেকের জয়ের ব্যবধান প্রায় আড়াই লক্ষ। সব মিলিয়ে তিনি জিতেছেন ৩লক্ষ ২০ হাজার ভোটে।

কালীঘাটে হরিশ মুখার্জি রোডে মমতার পরিবারের সম্পত্তি বৃদ্ধি নিয়েও বিভিন্ন সময় অভিযোগ করেছে বিরোধীরা। এই অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করে মমতার বক্তব্য, ‘‘ভোটের সময় ওরা এ সব প্রচার করেছে। তখন প্রচার করব, না মামলা করব?’’ নিরাপত্তার কারণে অভিষেকের বাড়ির সামনে হরিশ মুখার্জি রোডের একাংশ পুলিশের ব্যারিকেডে সারা বছর বন্ধ থাকে। এ নিয়েও অভিযোগ বিস্তর। মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য এদিন তা-ও মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।