দলের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে দিয়ে আগামী ১ অক্টোবর কলকাতার একটি পুজো উদ্বোধন করাতে চাইছে বিজেপি। তবে কোন পুজো তাঁকে দিয়ে উদ্বোধন করানো যাবে, তা মঙ্গলবার পর্যন্ত চূড়ান্ত করতে পারেননি রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। ১ অক্টোবর জাতীয় নাগরিক পঞ্জি নিয়ে দলীয় আলোচনাসভাও করার কথা শাহের। ওই সভার জন্য বিজেপির তরফে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম চাওয়া হয়েছে। রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) সুব্রত চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘ওই স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষ আজ পর্যন্ত আমাদের আবেদনের কোনও জবাব দেননি।’’ যদিও সরকারি সূত্রের বক্তব্য, শাহের সভার জন্য বিজেপি নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম চাইলে তাদের তা দেওয়া হবে।

শাহের আগে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতায় আসার কথা বিজেপির কার্যকরী সভাপতি জগৎপ্রকাশ নড্ডার। কাশ্মীরে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে একটি আলোচনাসভা করার কথা তাঁর। নড্ডার সভার জন্য মহাজাতি সদন চেয়ে আবেদন করেছে বিজেপি। সুব্রতবাবু জানান, এ ক্ষেত্রেও সদন কর্তৃপক্ষ তাঁদের কোনও জবাব দেননি।

এ দিকে, সরাসরি দলের তরফে পুজো কমিটিগুলিতে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টায় ধাক্কা খেয়ে এখন পুরস্কারের পথ ধরেছে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের বিশিষ্টদের তৈরি সংগঠন ‘বঙ্গ প্রয়াস’ এ দিন জানিয়েছে, সাবেকিয়ানা এবং ঐতিহ্য ধরে রেখেছে, কলকাতার এমন ১০টি সর্বজনীন পুজোকে বেছে নিয়ে পুরস্কার দেবে তারা। পাশাপাশি, শহরের আবাসনের পুজোগুলির মধ্যে ‘শ্য়ামাপ্রসাদ শারদ সম্মান’ প্রতিযোগিতারও আয়োজন করছে ওই সংগঠন।