• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিদ্রোহ ঠেকাতে মুচলেকার কৌশল

BJP
প্রতীকী ছবি

পুরভোটে প্রার্থী হতে না পেরে ‘বিদ্রোহ’ ঠেকাতে প্রার্থীপদের দাবিদারদের দিয়ে মুচলেকা লেখানোর সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি।

রাজ্য দলের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় সাংগঠনিক ভাবে কলকাতা পুরসভার দায়িত্বে। বিজেপি সূত্রের খবর, কলকাতা পুরসভার নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কমিটির বৈঠকে মঙ্গলবার কৈলাস বলেন, প্রতি ওয়ার্ডে সাত-আটটা করে প্রার্থী হওয়ার আবেদন জমা পড়ছে। কিন্তু প্রার্থী তো হবেন এক জন। কোনও কোনও ওয়ার্ডে রাজ্য থেকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে পাঠানো তালিকার সকলকে বাদ দিয়ে অন্য কাউকেও প্রার্থী করা হতে পারে। প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য পেশাদার সংস্থাকে দিয়ে যে সমীক্ষা করানো হচ্ছে, সেখান থেকে উঠে আসতে পারে অন্য কোনও নাম। প্রার্থী হতে চেয়ে না পারলে অনেক সময় অনেকে দলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেন। অনেকে বিরোধী দলের সঙ্গে হাত মেলান। সে ধরনের কাজ এ বার যাতে না হয়, তার জন্য প্রার্থীপদের প্রত্যেক আবেদনকারীকে দিয়ে মুচলেকা লিখিয়ে নিতে হবে। তা জমা রাখতে হবে সংশ্লিষ্ট জেলা সভাপতিদের কাছে। তার পরেও কেউ দলবিরোধী কাজ করলে তাঁর বিরুদ্ধে দল শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে ব্যবস্থা নেবে। কৈলাসের এই মুচলেকা-দাওয়াই কলকাতার পাশাপাশি অন্য পুরসভাতেও মানা হবে কি না, তা পরে ঠিক করবে বিজেপি।

দলের অন্দরের খবর, করোনা-সংক্রমণ ঠেকাতে পুরভোট আপাতত স্থগিত হয়ে যাওয়ায় নেতৃত্বের একাংশ স্বস্তিতে। তাঁরা মনে করছেন, এই বাড়তি সময়ে কলকাতার দুর্বল সংগঠন গুছিয়ে নিতে পারবেন। এই সময়ে ওয়ার্ড কমিটি গড়ে ফেলা সম্ভব হবে। যা অন্তত দশ দিন আগে গড়ার কথা ছিল। অন্য দিকে, করোনা-সতর্কতার জন্য আগামী ১ এপ্রিল পর্যন্ত জনসংযোগ কর্মসূচি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তও এ দিন নিয়েছে বিজেপি। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন