• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নথি দেখতে চেয়ে প্রহৃত রক্তদাতাই!

Blood Bank
ছবি সংগৃহীত।

করোনা-আতঙ্কের আবহে সমস্যা চলছে রক্তেরও! এই পরিস্থিতিতেই এক যুবক মানিকতলার সেন্ট্রাল ব্লাড ব্যাঙ্কে রক্ত দিতে এসে কর্মীদের হাতে মার খেয়েছেন বলে অভিযোগ। বুধবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটে। কৌশিক পাত্র নামে ওই রক্তদাতা বলেন, ‘‘বিআর সিংহ হাসপাতালে ভর্তি এক রোগী আমার পরিচিত। রক্ত দেওয়ার আগে নিয়মমাফিক ‘রিকুইজ়িশন ফর্ম’ দেখতে চাই। রক্তের ঠিকঠাক সদ্ব্যবহার হচ্ছে কি না, তা যাচাই করতেই নথি দেখতে চেয়েছিলাম। ব্লাড ব্যাঙ্কের কর্মীরা তা দেখাননি। রক্ত দেওয়া হয়ে গেলে ফের নথি দেখতে চাইলে ওঁরা আমায় মারধর করেন। ধাক্কা মেরে ব্লাড ব্যাঙ্ক থেকেই বার করে দেওয়া হয়।’’ রক্তদাতাদের একটি সংগঠন ব্লাডমেটস এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছে। 

এর পরেও কৌশিকের ভোগান্তি মেটেনি। বৃহস্পতিবার মানিকতলা থানায় অভিযোগ করতে গেলে তাতে কর্ণপাত করেনি থানা। এতে রক্তদাতারা ক্ষুব্ধ। কৌশিক বলেন, ‘‘আমার সামনেই পুলিশ ফোন করে বিষয়টি নিয়ে রোগীর আত্মীয়দের সঙ্গে কথা বলে। কিন্তু আমি অপমানিত হয়েছে জেনেও অভিযোগ নিল না। এতে মনটাই ভেঙে যাচ্ছে।’’ মানিকতলা থানার ওসি সুব্রত পালের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি অবশ্য তৎপরতার সঙ্গে বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দেন। থানা সূত্রের খবর, অভিযোগকারীর সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। তবে ব্লাড ব্যাঙ্কের কর্মীদের অভব্য ব্যবহারের কারণ কী? সেন্টাল ব্লাড ব্যাঙ্কের অধিকর্তা স্বপন সরেনকে প্রশ্ন করা হলে তিনি ‘এই নিয়ে কিছু বলতে পারব না’ বলে ফোন রেখে দেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন