• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফের সংক্রমণ বাড়ছে কলকাতা-হাওড়ায়, এক দিনে সংক্রমিত ৩৪৪

corona
প্রতীকী ছবি।

এক সপ্তাহের বেশি সময় কলকাতায় সংক্রমণের হার কম থাকার পর ফের বাড়ল কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮৭ জন। গোটা রাজ্যে এক দিনে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ৩৪৪। এখনও পর্যন্ত রাজ্যের ক্ষেত্রে যা রেকর্ড বৃদ্ধি। সব মিলিয়ে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ৩৫৬ জন, তার মধ্যে সক্রিয় আক্রান্ত আড়াই হাজারের বেশি।

স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহার ছাড়া বাকি সব জেলাই রেড নয়তো অরেঞ্জ জোনের অন্তর্ভুক্ত। গত ২৪ ঘণ্টার পরিসংখ্যান অনুযায়ী, কলকাতায় ৮৭ জন নতুন করে আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা এবং হাওড়াতে সংক্রমণের সংখ্যা বৃদ্ধি অব্যাহত। এই দুই জেলাতে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন যথাক্রমে ৪৯ এবং ৫৫ জন। এই দুই জেলাতেই কলকাতার মতোই সংক্রমণের হার অনেকটাই কমেছিল।

অন্য দিকে, পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে একের পর এক ট্রেন রাজ্য ঢোকার পর থেকেই সংক্রমণের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী উত্তর দিনাজপুর এবং মালদহে। এ বিষয়ে মঙ্গলবারও উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বাস্থ্য দফতরের এক কর্তার কথায়, ‘‘আমপানের পরেই গত সোমবার থেকে কলকাতা এবং সংলগ্ন এলাকায় কার্যত লকডাউনের কোনও অস্তিত্ব নেই। শহরের রাস্তা দেখলে মনে হবে লকডাউন নেই। অন্য পাঁচটা ব্যাস্ত দিনের মতোই শহরের রাস্তায় ট্রাফিকের ভিড়। রীতিমতো যানজট হচ্ছে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে।’’

কলকাতা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের এক কর্তা এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘সাধারণ সময়ে যা গাড়ি চলে তার মধ্যে বেসরকারি বাস এবং সংখ্যায় কম ট্যাক্সি চলছে। বাকি সব রকম যানবাহন চলছে। বুধবার থেকেই শহরের বিভিন্ন রুটে অটো চলাচল শুরু হয়ে গিয়েছে।”

এক স্বাস্থ্য কর্তার ইঙ্গিত, এই ভিড় কলকাতা এবং সংলগ্ন হাওড়া উত্তর ২৪ পরগনায় সংক্রমণ এক ধাক্কায় বেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ।

আরও পড়ুন- লকডাউনের মেয়াদ আরও ২ সপ্তাহ বাড়ানোর প্রস্তাব রাজ্যের?


সেই সঙ্গে স্বাস্থ্য কর্তাদের ইঙ্গিত, আমপানের পর যে সঙ্কটজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়, তার ফলে সামাজিক দূরত্ব বিধি এত দিন যে ভাবে মানা হয়েছিল, তা অনেকটাই জলাঞ্জলি গিয়েছে। সেটাও শহর এবং শহরতলির সংক্রমণ বাড়ার আর একটি বড় কারণ। কোভিড নিয়ন্ত্রণে রাখতে লোকাল ট্রেন এবং মেট্রো চালানোর বিরোধিতা করে সওয়াল করা হয়েছে কেন্দ্রের কাছে— নবান্ন সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘লকডাউন এখনও চলছে নাকি? দেখে মনে হচ্ছে?’


এই পরিস্থিতিতেও রাজ্যের পক্ষে একটাই আশার খবর, সুস্থ হওয়ার হার। রাজ্যে বর্তমানে রোগমুক্তির হার ৩৬.৭৭ শতাংশ। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে রোগমুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৬৮ জন।  বুলেটিন অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত সরাসরি করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২২৩ জনের। এ ছাড়াও কোমর্বিডিটিতে মৃত্যু হয়েছে আরও ৭২ জন করোনা আক্রান্তের।   

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন