• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রাথমিকে বহাল থাকবে রাজ্যের নিয়োগ প্রক্রিয়া, নির্দেশ হাইকোর্টের

primary

পিটিটিআই প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের আবেদন খারিজ করে রাজ্য সরকারের নিয়োগ প্রক্রিয়াকেই বহাল রাখার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। শুক্রবার হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দুই বিচারপতি ২০০৯ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের তৈরি প্যানেলকেই স্বীকৃতি দিল।

২০০৬ সালে এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলির জন্য শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করে। প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের জারি করা সেই বিজ্ঞপ্তিতে পরীক্ষায় বসার ন্যূনতম যোগ্যতা মাধ্যমিক এবং এক বছরের পিটিটিআই প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক বলে জানানো হয়। এক বছরের পিটিটিআই প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের জন্য ২২ নম্বর ধার্য করা হয়। কিন্তু ২০০৯ সালে রাজ্যের প্রাথমিক স্কুলগুলিতে নিয়োগের জন্য যোগ্য প্রার্থীদের প্যানেল তৈরি করার সময় এনসিটিই-র নিয়মটাই মানা হয়। এই নিয়ম অনুসারে, চাকরিপ্রার্থীদের ন্যূনতম উচ্চমাধ্যমিক পাশ হতে হবে এবং ২ বছরের পিটিটিআই প্রশিক্ষণ থাকতে হবে। যার ফলে এক বছরের পিটিটিআই প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা প্যানেল থেকে বাদ যান। ২০১২ সালে তাঁরা বিচার চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন। চলতি বছরের এপ্রিলে আবেদনকারীদের পক্ষেই রায় দেন বিচারপতি। সমস্ত আবেদনকারীকে ২২ নম্বর দিয়ে নিয়োগ তালিকার পুনর্বিন্যাস করতে বলেন বিচারপতি। এর পরেই এই রায়ের বিরুদ্ধে ডিভিশন বেঞ্চে মামলা করেছিল রাজ্য সরকার। সেই মামলার রায় রাজ্য সরকারের পক্ষেই গেল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন