সকলের সঙ্গে বৈঠকে বিনয়
মোর্চা সূত্রে খবর, এই সব ক’টি সংগঠনের সঙ্গেই এক দফা বৈঠক হয়েছে বিনয়দের। এমন আরও কিছু সংগঠনের সঙ্গে কথা বলবেন বলে ঠিক করে রেখেছেন। বিনয় বলেন, ‘‘সকলেই পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। প্রচারের অংশ নিচ্ছেন।’’ 
Binay Tamang

বিনয় তামাং।

বিমল গুরুংয়ের আমলে মোর্চার সংগঠন দেখভালের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মাথা ছিলেন তিনি। সেই জমানা শেষ। এখন তাঁর জমানায় প্রথম ভোট-পরীক্ষা। তার আগে অমর সিংহ রাইয়ের পক্ষে জনসভা করার পাশাপাশি ছোটবড় বিভিন্ন সংগঠনকে নিজেদের দিকে টানতে আলাদা করে বৈঠক শুরু করেছেন বিনয় তামাং। এই তালিকায় আছে গাড়িচালক, মালিক, ট্যুর অপারেটর, হাসপাতাল কর্মী, সাফাই কর্মী, হোটেল ব্যবসায়ীদের সংগঠন। আছে হোম স্টেগুলির সংগঠনও। পাহাড় জুড়ে ছড়িয়ে থাকা হোম স্টে-র মালিকরা এখন যথেষ্ট প্রভাবশালী। তাঁদের সমর্থন পেতে তাই এর মধ্যেই ময়দানে নেমে পড়েছেন বিনয়।

মোর্চা সূত্রে খবর, এই সব ক’টি সংগঠনের সঙ্গেই এক দফা বৈঠক হয়েছে বিনয়দের। এমন আরও কিছু সংগঠনের সঙ্গে কথা বলবেন বলে ঠিক করে রেখেছেন। বিনয় বলেন, ‘‘সকলেই পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। প্রচারের অংশ নিচ্ছেন।’’ 

২০১৭ সালের টানা বন্‌ধ ও আন্দোলনের রেশ এখন আর পাহাড়ে নেই। বিমল গুরুংও বহু দিন পাহাড় ছাড়া। তা সত্ত্বেও বিমলের ছায়া পাহাড়ে রয়ে গিয়েছে বলে একাংশের অভিমত। বিনয় যদিও বারবার বলেছেন, বিমলের কিছুই অবশিষ্ট নেই। কিন্তু তাঁকে সে ভাবে পরীক্ষাও দিতে হয়নি বিমলের ছায়ার সঙ্গে। আসন্ন লোকসভা ভোটই তাঁর প্রথম পরীক্ষা। বিনয়পন্থী মোর্চা নেতারা বলছেন, সে ক্ষেত্রে তৃণমূলের সঙ্গে সমঝোতা করে প্রার্থী দিয়ে আগেভাগে ময়দানে নেমে পড়াটাই বিনয়ের পক্ষে অ্যাডভান্টেজ। যদিও বিরোধীদের কথায়, পাহাড়ে ভোট হতে এখনও মাসখানেক বাকি। তার মধ্যে সমীকরণ অনেক বদলাতে পারে। কিন্তু মোর্চা সূত্রে খবর, অনেক আগে থেকেই ছক কষে নিয়েছিলেন বিনয়। 

কী ভাবে? কাদের সঙ্গে বৈঠক হবে, মাসখানেক আগেই তার তালিকা তৈরি হয়ে গিয়েছিল। কোন সংগঠনের কী সমস্যা আছে, সেই সমস্যা সমাধানে কী করা হয়েছে বা কী করার পরিকল্পনা আছে— সেগুলিও ঠিক করা হয়েছিল। কয়েক দিন আগে হিমালয়ান ট্রান্সপোর্ট কো-অর্ডিনেশন কমিটির সঙ্গে বৈঠক করেন বিনয়। সেই বৈঠকের পরে এ দিন অমর সিংহ রাইকে সমর্থন করার কথা ঘোষণা করেছেন সংগঠনের সভাপতি এসএন প্রধান। দার্জিলিং জেলার ৭২টি সিন্ডিকেট পরিচালনা করে ওই কমিটি। কয়েক হাজার চালক ও মালিক সংগঠনের সদস্য। 

প্রধান বলেন, ‘‘জিটিএ-র চেয়ারম্যানের সঙ্গে বৈঠকের পরে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছি। ঠিক হয়েছে, আমরা অমরকেই সমর্থন করব। তাঁর হয়ে প্রচারেও অংশ নেব।’’ মোর্চার সাধারণ সম্পাদক অনীত থাপা বলেন, ‘‘আগে কারও কথা শোনাই হত না। আমরা সবাইকে গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা করছি। তাতেই অনেক সমস্যা মিটছে। ছোট সংগঠনগুলি আমাদের হয়ে প্রচারেও নেমেছে।’’    

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত