প্রশাসনকে কুকথা, শো-কজ দিলীপকে
গত ১৩ এপ্রিল রামনবমী উপলক্ষে খড়্গপুরে ছিলেন দিলীপ। ওই দিনই অভিযোগ ওঠে, রামনবমী ও নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাতে শহরের বিধায়ক দিলীপের ছবি দিয়ে টাঙানো হোর্ডিং খুলে দেওয়া হয়েছে।
dilip ghosh

—ফাইল চিত্র।

নির্বাচন কমিশনের শো-কজের মুখে পড়লেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সোমবার মেদিনীপুর লোকসভার প্রার্থী দিলীপকে শো-কজ করেছেন খড়্গপুরের মহকুমাশাসক। আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে তাঁকে  জবাব দিতে বলা হয়েছে। 

গত ১৩ এপ্রিল রামনবমী উপলক্ষে খড়্গপুরে ছিলেন দিলীপ। ওই দিনই অভিযোগ ওঠে, রামনবমী ও নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাতে শহরের বিধায়ক দিলীপের ছবি দিয়ে টাঙানো হোর্ডিং খুলে দেওয়া হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ওই হোর্ডিং খোলা হয়েছে জেতে ক্ষুব্ধ দিলীপ একটি বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমে প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিরূপ মন্তব্য করেন। বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের নজরে আসে। প্রশাসন সূত্রে খবর, কমিশনের তরফে যাচাই করা হয় ওই ভিডিয়ো ফুটেজ। এর পরেই কলকাতার মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দফতর থেকে বিষয়টি খতিয়ে দেখে খড়্গপুরের মহকুমাশাসককে পদক্ষেপ করতে বলা হয়। খড়্গপুরের মহকুমাশাসক সুদীপ সরকার বলেন, “রামনবমীর দিন প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিরূপ মন্তব্য করায় দিলীপ ঘোষকে শো-কজ করা হয়েছে।” 

শো-কজের ব্যাপারে দিলীপের প্রতিক্রিয়া, “শো-কজ করা হয়েছে বলে শুনেছি। ঠিক কী লেখা রয়েছে দেখে জবাব দেব।” তৃণমূল অবশ্য এ নিয়ে বিঁধতে ছাড়ছে না। দলের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, “দিলীপ ঘোষ প্রার্থী হিসাবে যে উন্মাদের মতো কথা বলছেন তাতে প্রতিদিন ওঁকে শো-কজ করা উচিত।”

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

নির্বাচনী নির্ঘণ্ট

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত