মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার পরে রাজ্য জুড়ে ভারী মালবাহী গাড়ি চলাচল নিয়ন্ত্রণের ফলে ফাঁপরে পড়েছেন চালকলের মালিকেরাও।

বৃহস্পতিবার কলকাতায় এক সম্মেলনে এই নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন বেঙ্গল রাইস মিলস অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী সভাপতি আব্দুল মালেক। সম্মেলনে ছিলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, খাদ্যসচিব মনোজ অগ্রবাল। মালেক জানান, সরকার মালবাহী ভারী গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করায় চালকলের অনেক গাড়ি আটকে গিয়েছে। খাদ্য দফতরের গুদামে চাল সরবরাহের কাজ ব্যাহত হচ্ছে। জট কাটানোর জন্য জেলা প্রশাসনকে আবেদন জানানো হয়েছে। খাদ্যমন্ত্রী জানান, গাড়ি ঘুরে যেতে হলে বাড়তি খরচ বহন করবে সরকার। চিন্তার কোনও কারণ নেই।

২০১৮-’১৯ সালে ৫২ লক্ষ মেট্রিক টন ধান কেনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী। ১ নভেম্বর চাল কেনা শুরু হবে।