• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অস্ত্র-মিছিল, পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধে রণক্ষেত্র কান্দি

ram navami
কান্দিতে রামনবমীর মিছিল। —নিজস্ব চিত্র।

রামনবমীর মিছিল উপলক্ষে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিল মুর্শিদাবাদের কান্দি। রামনবমীতে অস্ত্র হাতে মিছিল করার অনুমতি না মেলায় চাপা উত্তেজনা ছিলই। সোমবার মুর্শিদাবাদের কান্দিতে হিন্দুত্ববাদী একটি সংগঠনের সমর্থকেরা অস্ত্র হাতে মিছিল করতে শুরু করলে পুলিশ বাধা দেয়। এবং তার পরেই পুলিশ-মিছিলকারীদের মধ্যে খণ্ডযুদ্ধ বেধে যায় কান্দিতে। মিছিলকারীরা থানায় ঢুকে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করেন। বিক্ষোভকারীদের সামলাতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ এবং তার পর পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি শুরু করেন বিক্ষোভকারীরা। অভিযোগ এমনই।

পুলিশ জানিয়েছে, এ দিন সকাল ১০টা নাগাদ কান্দি শহরে অস্ত্র নিয়ে মিছিল শুরু করে ওই হিন্দুত্ববাদী সংগঠন। সোমবার রামনবমী উপলক্ষে মিছিলের আগাম অনুমতি থাকলেও মিছিলে অস্ত্র নিয়ে হাঁটার কোনও অনুমতি নেওয়া ছিল না তাঁদের। তা সত্ত্বেও কান্দি বাসস্ট্যান্ড থেকে অস্ত্র নিয়ে মিছিল শুরু করে ওই সংগঠন। কিছু দূর এগোলে খবর পেয়ে পুলিশ অস্ত্র নিয়ে মিছিল করতে বাধা দেয়। এই নিয়ে পুলিশের সঙ্গে মিছিলকারীদের বচসা শুরু হয়ে যায়। পুলিশের তুলনায় মিছিলকারীরা সংখ্যায় অনেক বেশি থাকায় তাঁদের আটকাতে ব্যর্থ হয় পুলিশ। পুলিশের বাধা অতিক্রম করে বাসস্ট্যান্ড থেকে কান্দি থানার দিকে এগিয়ে যান মিছিলকারীরা। থানার ভিতরে ঢুকে অস্ত্র হাতে নাচানাচি করছিলেন মিছিলকারীরা। তাঁদের নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। ওই সংগঠনের এক সক্রিয় সদস্য শিবপ্রসাদ পালের অভিযোগ, এতে তাঁদের দুই সমর্থক জখম হন। আর তাতেই আরও উত্তেজিত হয়ে পড়েন মিছিলকারীরা। থানার বাইরে দাঁড় করানো একটি প্রিজন ভ্যানে ভাঙচুর চালান। পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছুড়তে শুরু করেন তাঁরা। পুলিশের বিশাল বাহিনী এসে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে। পুলিশ-মিছিলকারীর খণ্ডযুদ্ধে দুই মিছিলকারী ছাড়াও দুই সাংবাদিক জখম হয়েছেন।

আরও পড়ুন: সাবালকের মিছিলে অস্ত্র নাবালকও, নিন্দায় বিশিষ্টরা

এলাকায় এখনও উত্তেজনা রয়েছে। ধারালো অস্ত্র না থাকলেও সমর্থকদের অনেককেই হাতে বাঁশ, লাঠি নিয়ে ঘুরে-বেড়াতে দেখা গিয়েছে।

ভিডিও: রামনবমীর মিছিল কান্দিতে

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন