বিজেপি-র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বলে গিয়েছেন, তিনি মার খাওয়ার কাঁদুনি শুনতে চান না।

দলের কর্মীরা যেন প্রতিরোধ করেন। তার ৪৮ ঘণ্টা না কাটতেই রাজ্যসভার বিজেপি সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের হুমকি, ‘‘আমি খুব ভাল একে-৪৭ চালাতে পারি। ওয়ান ব্যারেল, টু ব্যারেল, পিস্তল, রিভলবার সবই চালাতে পারি। বিজেপি কর্মীরা বসে বসে মার খাওয়ার জন্য জন্মাননি। প্রয়োজনে বুদ্ধি প্রয়োগ করে যে অস্ত্র দরকার, সেটাই তাঁরা ব্যবহার করবেন।’’

চম্পাহাটিতে এক ব্যক্তির খুনের প্রেক্ষিতে অভিযুক্তদের গ্রেফতারির দাবিতে অবস্থানে বসেছিলেন রূপা। কলকাতায় ফিরে শুক্রবার তিনি এই হুমকি দেন।

আরও পড়ুন: বিজেপি-র তামাক খাচ্ছেন ঋতব্রত, ক্ষোভ বিজয়নদের

পাশাপাশি, এ দিনই বিজেপি-র মহিলা মোর্চার রাজ্য সম্মেলনে সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছেন, আগামী ১৫ নভেম্বরের মধ্যে সংগঠনের মণ্ডল কমিটি, মাতৃশক্তি বাহিনী, উপজাতি অধ্যুষিত জেলায় উপজাতি কমিটি গড়তে হবে।