বিজেপি কর্মীদের বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে উত্তর দমদম পুরসভা এলাকার নিমতায়।

এ দিন কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ের ধারে একটি চায়ের দোকানে বসে গল্প করছিলেন কয়েক জন বিজেপি সমর্থক। অভিযোগ, তখনই তৃণমূলের এক দল দুষ্কৃতী তাঁদের উপর অতর্কিতে লাঠি, ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এই ঘটনায় চার জন জখম হয়েছেন। তাঁদের সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তিন জনকে প্রথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হলেও বাকি এক জনের জখম গুরুতর হওয়ায় তাঁর অস্ত্রোপচারের ব্যবস্থা করা হয়।

আরও অভিযোগ, এই ঘটনায় কয়েক জন বিজেপি সমর্থক পালিয়ে গেলেও গণেশ নামে এক বিজেপি কর্মী দীর্ঘ ক্ষণ নিখোঁজ ছিলেন। পরে তাঁকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করা হয় বলে দাবি স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের। এই হামলার ঘটনায় উত্তর দমদম পুরসযভার ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর বিধান বিশ্বাসের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছে বিজেপি। যদিও এই হামলায় তিনি বা তাঁর দলের লোকেরা কোনও ভাবেই জড়িত নন বলে পাল্টা দাবি করেছেন ওই তৃণমূল কাউন্সিলর। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ।

আরও পড়ুন: বিজেপি না-করায় মার! দাবি পুত্রহারা মায়ের