তৃণমূলের নির্বাচনী তহবিলের টাকা তোলার জন্য শীর্ষ নেতৃত্বের অনুমোদন সূচক চিঠি সিবিআইয়ের কাছে জমা দিয়েছেন দলের এক হেভিওয়েট নেতা। সিবিআই সূত্রের খবর, ২০১৫ সালের সেই চিঠি দেখিয়ে তিনি দাবি করেছেন, দলের শীর্ষ নেতা তহবিল সংগ্রহের নির্দেশ দিয়েছিলেন বলেই ছদ্মবেশী সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েলের কাছ থেকে টাকা নিয়েছিলেন তিনি।

নারদ কাণ্ডে কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্রোপাধ্যায় ও প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র ইকবাল আহমেদ দু’জনেই অভিযুক্ত। ম্যাথু স্যামুয়েল দাবি করেছেন, দুই নেতার বাড়ি ও অফিসে গিয়েই টাকা দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর আরও দাবি, স্টিং অপারেশনে নেতা-মন্ত্রীদের কাছে গিয়ে ব্যবসায়িক সুবিধা চেয়ে টাকা দিয়েছিলেন তিনি।

সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, নারদ কাণ্ডে অভিযুক্ত সেই হেভিওয়েট নেতা সিবিআইকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন, তিনি ব্যক্তিগত ভাবে ওই টাকা নেননি। শীর্ষ নেতার নির্দেশ অনুযায়ী নির্বাচনী তহবিলের জন্য অর্থ সংগ্রহ করেছিলেন। কোনও ভাবেই ঘুষ  নেননি।

এই তথ্য সামনে আসার পরে সম্প্রতি নারদ মামলায় ম্যাথুকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ওই হেভিওয়েট নেতা টাকা নেওয়ার সময় দলীয় তহবিলের প্রসঙ্গে কিছু বলেছিলেন কি না, তা ম্যাথুকেও জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল। ম্যাথু জানিয়েছেন, টাকা নিয়ে ওই নেতা কোনও রশিদ দেননি। তবে সূত্রের খবর, ম্যাথু তদন্তকারীদের জানিয়েছেন, দলের শীর্ষনেতাদের তরফে তিনি টাকা নিয়ে থাকেন বলে ওই নেতা তাঁকে একাধিক বার জানিয়েছিলেন।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।