• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রবল বৃষ্টির সতর্কতা উত্তরের ৫ জেলায়, বন্যা-ধসে ব্যাহত হতে পারে জনজীবন

rain
আগামী বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায় প্রবল বৃষ্টির জেরে পাহাড়ে ধস, এমনকি, বন্যার আশঙ্কাও করছেন আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা। —ফাইল চিত্র।

উত্তরবঙ্গে প্রবল বৃষ্টির সতর্কতা জারি করল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বৃষ্টির জেরে পাহাড়ে ধস, এমনকি, বন্যার আশঙ্কাও করছেন আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা। পাহাড়ের রাস্তাও আটকে যেতে পারে। আগামী বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত ঝেঁপে বৃষ্টি চলবে দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়িতে। তার পর ধীরে ধীরে বৃষ্টি কমতে পারে।

মৌসুমী অক্ষরেখা ক্রমশই উত্তরের দিকে সরেছে। তার ফলে বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাস্প ঢুকছে হিমালয়ের পার্বত্য এলাকায়। সে কারণে আগামী কয়েকদিন বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে উত্তরের ওই জেলাগুলিতে। প্রবল বৃষ্টির কারণে পার্বত্য এলাকায় ধসেরও সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা। আটকে যেতে পারে রাস্তাও। পাহাড়ি নদীগুলির জলস্তরও বাড়ার কারণে হতে পারে বন্যাও। তার জেরে ক্ষয়ক্ষতি এবং জনজীবনও ব্যাহত হতে পারে বলে মনে করছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

ধস নামার কারণে ১০ নম্বর জাতীয় সড়কও বন্ধ রয়েছে। আপাতত শিলিগুড়ি সিকিম এবং কালিম্পংয়ের রাস্তায় যোগাযোগ ব্যাহত হচ্ছে। যাতে দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা যায় তারই চেষ্টা চলছে। এর পাশাপাশি আলিপুর আবহাওয়া দফতরের সতর্কতা বার্তা পাওয়ার পর, রাজ্য প্রশাসন গোটা পরিস্থিতির উপরে নজর রাখছে। ওই জেলাগুলিতে ইতিমধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার পক্রিয়াও শুরু হয়ে গিয়েছে। শুধু এ রাজ্যেই নয়, অসম, সিকিম, মেঘালয়-সহ হিমালয়ের পার্বত্য এলাকায় বৃষ্টি চলবে আগামী রবিবার পর্যন্ত। কেরলে এ বছর ১ জুন নির্দিষ্ট সময়ে বর্ষার আগমন ঘটে। এ রাজ্যে ১২ জুন দুই বঙ্গে ঢুকেছে মৌসুমী বায়ু। তার পর থেকে এখনও পর্যন্ত নির্দিষ্ট হারে বৃষ্টি হয়ে চলেছে।

আরও পড়ুন: ফের কি কড়া লকডাউন রাজ্যে, জল্পনা

আরও পড়ুন: করোনা: কলকাতার কোন অঞ্চলগুলো নিয়ে চিন্তিত প্রশাসন

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন