West Bengal News: US Consulate of Kolkata taking initiative to prevent gender discrimination - Anandabazar
  • নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লিঙ্গ বৈষম্য হটানোর ডাক জীবনের চেনা গল্পে

play
মঞ্চে: লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে নাটকে সরব তরুণ-তরুণীরা। —নিজস্ব চিত্র

Advertisement

একটা করে গল্প। সাধারণ কিছু কথা। চেনা। প্রতিদিনের জীবনে জড়ানো লিঙ্গ বৈষম্য আর তা থেকে তৈরি হওয়া হিংসা— ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে সেগুলোকে তুলে আনা। কলকাতার মার্কিন কনস্যুলেটের উদ্যোগে ‘ওয়ান স্টোরি অ্যাট আ টাইম’ কর্মশালায় উঠে এল সেই চেনা গল্পের ছবি। যিনি হিংসার শিকার, কখনও তার ভাষ্যে। কখনও বা তার বন্ধু বা পরিচিতের কথায়।

যেমন একবগ্গা এক মেয়ের কাহিনি শোনালেন তাঁর প্রশিক্ষক। মেয়েটি ছৌ নাচ পছন্দ করে। কিন্তু বাংলার এ লোকশিল্পে মহিলাদের সে ভাবে দেখা যেত না। মেয়েটির জেদ ছিল ছৌ নাচবেই। দু’মিনিটে উঠে এল তার জেদের গল্প। শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, আছে উত্তর-পূর্বের অসম-নাগাল্যান্ড, ঝাড়খণ্ড, আছে বাংলাদেশও। ছড়িয়ে ছিটিয়ে ২৪ জনের গল্প। নিজেদের জীবন থেকে তুলে আনা। সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে ভিডিও-বন্দি দু’মিনিটের এক একটি গল্প ছড়িয়ে দেওয়া হবে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কথা বলার পাশাপাশি নাটকের মাধ্যমেও লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর শপথ নিয়েছেন তরুণ-তরুণীর দল।

গোটা কর্মসূচির তত্ত্বাবধানে রয়েছেন এমি হিল, সান ফ্রান্সিসকোয় ‘স্টোরি সেন্টার’-এর অধিকর্তা। আর মার্কিন বিদেশ দফতরের মেরি কে হেজেল। এমি জানালেন, কী ভাবে প্রাথমিক জড়তা কাটিয়ে সব তরুণ-তরুণী তাঁদের কাছে এগিয়ে এসেছেন কথা বলতে। আলাপচারিতায় নাগাল্যান্ডের এক তরুণী যেমন জানালেন, উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পত্তি তাঁকে দেওয়া হবে না, কারণ তিনি মেয়ে। তাঁদের সমাজে এটাই রীতি। সম্পত্তির লোভ নেই তাঁর, কিন্তু শুধু মেয়ে বলে এই বঞ্চনা কেন? প্রশ্ন তাঁর। ভিডিয়োয় তাঁকে দেখে যদি পরিচিতরা আরও চাপ দেয়? ‘‘ভয় পাই না, এই রীতি বন্ধ করতে চাই,’’ বলেন তিনি।

শুধু মেয়েরা নয়। লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার হতে হয় পুরুষদেরও। মনে করালেন পুরুষেরাই। কখনও পরিণত বয়সে, কখনও স্কুল স্তরে। অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকাকে ভালবেসে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন নাগাল্যান্ডের তরুণ। বয়স তখন ১৯। প্রেমিকার বাবা-মায়ের চূড়ান্ত অপমানে শেষ হয়ে যায় সম্পর্ক। ভূমিষ্ঠ হয়নি সে শিশুও। এ যন্ত্রণা কীসে কম? রূপান্তরকামী সত্তা নিয়ে স্কুলে নির্যাতন সহ্য করে এখন এক কিশোর ঘরবন্দি। পড়াশোনাও। এমন ২৪ জন। পাঁচ দিনের কর্মশালায় ভাগ করে নিয়েছেন নিজেদের বা অন্য কারও অভিজ্ঞতা। সে অভিজ্ঞতা লিঙ্গ-বৈষম্য দূরে হটাক, গল্পগুলো তাই চায়।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন