বেবি বাম্প নিয়ে র‌্যাম্পে হাঁটা, সন্তানের জন্ম দেওয়ার অল্প দিনের মধ্যে‌ই কাজে ফেরা, টেলিভিশনে এখনও অবধি সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া মহিলা শিল্পী.... ট্রেন্ডসেটারের নাম করিনা কপূর। তাঁর মুকুটে জুড়ল আরও একটি পালক। বড় পর্দার কেরিয়ারে জোয়ার থাকতে থাকতেই রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারকের ভূমিকায় তিনি। ‘ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স’-এ গায়ক রফতার ও কোরিয়োগ্রাফার বসকোর সঙ্গে বিচারকের আসনে করিনা।

 

সেকেন্ড ইনিংস

দেড় দশকেরও বেশি সময় ধরে ছোট পর্দা কাঁপাচ্ছে রিয়্যালিটি শো। সেই শোগুলির ইতিবৃত্ত পর্যবেক্ষণ করলে একটি ধারা স্পষ্ট, বলিউড অভিনেত্রীদের অনেকেই এই রিয়্যালিটি শোয়ের হাত ধরে লাইমলাইটে ফিরেছেন। সেই তালিকায় মাধুরী দীক্ষিত, জুহি চাওলার মতো এক সময়ের প্রথম সারির অভিনেত্রীরা যেমন রয়েছেন, তেমনই শিল্পা শেট্টি, সোনালি বেন্দ্রের মতো দ্বিতীয় সারির নায়িকারাও শামিল। বড় পর্দাকে বিদায় বলার বেশ অনেক বছর পরেই তাঁরা ছোট পর্দায় ফিরেছেন। এই অন্তর্বর্তী সময়ে মাধুরী-জুহি বিক্ষিপ্ত দু’-একটি ছবি যে করেননি, তা নয়। তবে রিয়্যালিটি শোয়ের দৌলতেই তাঁরা কেরিয়ারের সেকেন্ড ইনিংস শুরু করেছিলেন। 

করিনার ছোট পর্দায় ডেবিউ প্রমাণ করে দিল, এই প্রজন্মের শিল্পীরা সেকেন্ড ইনিংসে বিশ্বাসী নন। তাঁর মুক্তি পাওয়া শেষ ছবি ‘বীরে দি ওয়েডিং’। হাতে রয়েছে কর্ণ জোহরের ‘তখ্‌ত’, ইরফান খানের সঙ্গে ‘আংরেজ়ি মিডিয়াম’, অক্ষয়কুমারের সঙ্গে ‘গুড নিউজ়’। হাতে ছবি নেই বলে অভিনেত্রীরা রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারক হন, সেই ধারাও ভাঙলেন করিনা।

 

নজরে থাকতে হবে

বলিউডে অভিনেতাদের তুলনায় অভিনেত্রীদের কেরিয়ার স্বল্পমেয়াদি। যদিও বিয়ে-সন্তানের পরে চুটিয়ে কাজ করে এই ধারণায় বদল আনছে জেন ওয়াই। হাতে কাজ না থাকলেও সোশ্যাল মিডিয়া লাইমলাইটে থাকার পাকা বন্দোবস্ত করে দিয়েছে সেলেব্রিটিদের। যার সুফল মাধুরী থেকে শিল্পা সকলেই উপভোগ করেন। তবে কাজের নিরিখে দর্শকের নজরে থাকতে টিভির বিকল্প নেই। বড় পর্দার চেয়েও ক্ষেত্রবিশেষে এর পরিধি বেশি। তাই সে দিক দিয়ে দেখলে করিনা সেরা মাধ্যমকেই বেছে নিয়েছেন। এ ছাড়া মাস কয়েক আগেই এফএম চ্যানেলে একটি শো করেছিলেন অভিনেত্রী। নিজের উপস্থিতি জানাতে কোনও মাধ্যমই নজরের আড়াল করছেন না তিনি।

 

পারিশ্রমিকের বৈষম্য ঘোচালেন

বড় পর্দার পাশাপাশি ছোট পর্দার রিয়্যালিটি শোয়েও রাজত্ব করেছেন শাহরুখ খান ও সলমন খান। তবে এঁদের স্টারডমের সঙ্গে বলিউডের কোনও অভিনেত্রীর স্টারডমের তুলনা চলে না। তা সত্ত্বেও পারিশ্রমিকের নিরিখে এই মুহূর্তে টেলিভিশনের সবচেয়ে দামি মহিলা শিল্পী বলা হচ্ছে করিনাকে। ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে শোনা যায়, মাধুরী-শিল্পা দিন প্রতি এক কোটি  টাকার পারিশ্রমিক পান। টাকার অঙ্ক জানাতে অনিচ্ছুক করিনা এই প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘‘পুরুষ তারকারা যদি বড় অঙ্কের টাকা পেতে পারেন, তবে‌ মহিলা তারকারাও ডিজ়ার্ভ করেন। টিভির জন্য অনেক পরিশ্রম করতে হয়।’’

 

ব্যতিক্রমী ত্রয়ী

ধারাবাহিক ভাবে রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারক হিসেবে লাইমলাইটে মালাইকা অরোরা। ছবিতে বিশেষ সাফল্য না পাওয়ায় সোনাক্ষী সিংহ ও জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ়ও শোয়ের বিচারক হয়েছেন। 

মাসের শেষেই তাঁর অগণিত অনুরাগীর ড্রয়িং রুমে পৌঁছে যাবেন করিনা। শো চলাকালীনও ট্রেন্ড ভাঙা-গড়ার খেলায় তাঁর নাম করিনা রাখবেন বলেই আশাবাদী দর্শক।