Advertisement
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

৪ নভেম্বর, ১৯২৫

ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চিত্রনাট্যকার ঋত্বিক ঘটক। ১৯৫০ সালে নিমাই ঘোষের ‘ছিন্নমূল’ ছবিতে সহ-নির্দেশক ও অভিনেতা হিসাবে চলচ্চিত্র জগতে আত্মপ্রকাশ। তিনি মোট ৮টি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছায়াছবি এবং কিছু স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি ও তথ্যচিত্র তৈরি করেছেন। তাঁর প্রথম বাণিজ্যিক ছবি ‘অযান্ত্রিক’। বাস্তব জীবনের নানা চিত্র নিয়ে তৈরি তাঁর সিনেমা অবিস্মরণীয়। নির্দেশক হিসাবে তাঁর কাজ শুধু বাংলা নয় সমগ্র ভারতীয় সিনেমায় ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে। উদ্বুদ্ধ করেছেন অনেক নতুন প্রজন্মের নির্দেশকদেরও। চিত্রনাট্যকার হিসাবে তাঁর প্রথম সফল বাণিজ্যিক ছবি ‘মধুমতী’। ‘তিতাস একটি নদীর নাম’ ছবির জন্য বাংলাদেশ সিনে জার্নালিস্ট অ্যসোসিয়েশন-এর পক্ষ থেকে তাঁকে সেরা নির্দেশকের পুরস্কার দেওয়া হয়। তাঁর সেরা ছবিগুলি— মেঘে ঢাকা তারা, কোমল গান্ধার, সুবর্ণরেখা। ১৯৭০-এ পদ্মশ্রী খেতাব পান। ১৯৭৪-এ ‘যুক্তি তক্ক আর গপ্প’ ছবির জন্য রজত কমল পুরস্কার পান।

শেষ আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০১৫ ০০:০০
Share: Save:

ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চিত্রনাট্যকার ঋত্বিক ঘটক। ১৯৫০ সালে নিমাই ঘোষের ‘ছিন্নমূল’ ছবিতে সহ-নির্দেশক ও অভিনেতা হিসাবে চলচ্চিত্র জগতে আত্মপ্রকাশ। তিনি মোট ৮টি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছায়াছবি এবং কিছু স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি ও তথ্যচিত্র তৈরি করেছেন। তাঁর প্রথম বাণিজ্যিক ছবি ‘অযান্ত্রিক’। বাস্তব জীবনের নানা চিত্র নিয়ে তৈরি তাঁর সিনেমা অবিস্মরণীয়। নির্দেশক হিসাবে তাঁর কাজ শুধু বাংলা নয় সমগ্র ভারতীয় সিনেমায় ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে। উদ্বুদ্ধ করেছেন অনেক নতুন প্রজন্মের নির্দেশকদেরও। চিত্রনাট্যকার হিসাবে তাঁর প্রথম সফল বাণিজ্যিক ছবি ‘মধুমতী’। ‘তিতাস একটি নদীর নাম’ ছবির জন্য বাংলাদেশ সিনে জার্নালিস্ট অ্যসোসিয়েশন-এর পক্ষ থেকে তাঁকে সেরা নির্দেশকের পুরস্কার দেওয়া হয়। তাঁর সেরা ছবিগুলি— মেঘে ঢাকা তারা, কোমল গান্ধার, সুবর্ণরেখা। ১৯৭০-এ পদ্মশ্রী খেতাব পান। ১৯৭৪-এ ‘যুক্তি তক্ক আর গপ্প’ ছবির জন্য রজত কমল পুরস্কার পান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE