Advertisement
১৬ এপ্রিল ২০২৪
শনিবার সন্দেশখালিতে মিনাক্ষী মুখোপাধ্যায়।

শনিবার সন্দেশখালিতে মিনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। — নিজস্ব চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
সন্দেশখালি শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৮:১০
Share: Save:
শুধু মূল বিষয়গুলি
timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৮:১০ key status

পুলিশকে সময় দিলেন মিনাক্ষী

এসপি অফিসে স্মারকলিপি জমা দিতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট আধিকারিককে মিনাক্ষী বলেন, ‘‘আমাদের যে পুলিশ আধিকারিক আটকেছেন, চার দিনের মধ্যে আমি জানতে চাই, তাঁর বিরুদ্ধে আপনারা কী ব্যবস্থা নিলেন। আমাকে জানাতে হবে, কোন নির্দেশের ভিত্তিতে তিনি আমাদের আটকেছেন। তৃণমূলের নেতারা ওখানে কী করে ঘুরে বেড়াচ্ছে, জানাতে হবে।’’

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৭:০৫ key status

স্মারকলিপি দিয়ে বেরোলেন মিনাক্ষীরা

বসিরহাটের এসপি অফিসে স্মারকলিপি জমা দিয়ে বেরোলেন মিনাক্ষীরা। সন্দেশখালি সংক্রান্ত তাঁদের অভিযোগ তাঁরা এসপিকে জানিয়েছেন।

Advertisement
timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৬:১৫ key status

চার জনকে ঢোকার অনুমতি

মিনাক্ষীদের সামনে ব্যারিকেড করে দাঁড়িয়েছিল পুলিশ। মিনাক্ষীরা স্মারকলিপি জমা দেবেন বলে জানান। পুলিশ তাঁদের চার জনকে ভিতরে ঢোকার অনুমতি দিয়েছে।

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৬:১১ key status

মিনাক্ষীদের সামনে ব্যারিকেড পুলিশের

বসিরহাট এসপি অফিসে স্মারকলিপি জমা দিতে যাচ্ছেন মিনাক্ষীরা। তাঁদের সামনে ব্য়ারিকেড করে দাঁড়িয়ে আছে পুলিশ। 

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৫৬ key status

কী বললেন মিনাক্ষী

এসপি অফিসের দিকে যেতে যেতে মিনাক্ষী বলেন, ‘‘এখানে পুলিশ ইচ্ছাকৃত ভাবে সন্ত্রাস বজায় রাখতে চাইছে। এসপি অফিস থেকে কেউ ফোনও ধরছে না। এখানকার মানুষের জমি কেড়ে নেওয়া হয়েছে, টাকা লুট করা হয়েছে, গায়ে হাত দেওয়া হয়েছে। পুলিশকে এর জবাব দিতে হবে। মানুষের নিরাপত্তার জন্য ওদের কাজ করতেই হবে।’’

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৫৪ key status

‘মিনাক্ষীকে আটকানো হয়নি’

মিনাক্ষীকে আটকানো হয়নি বলে দাবি করলেন পার্থ ভৌমিক। তিনি জানান, ‘‘প্রথমত, আমি এখানে সেচমন্ত্রী হিসাবে এসেছি। রাজনৈতিক নেতা হিসাবে নয়। আর দ্বিতীয়ত, আমি মিনাক্ষীকে দেখেছি, উনি টোটো করে ঘুরছেন। কেউ আটকায়নি। সঙ্গে ৫০ জন মহিলাও আছেন।’’

Advertisement
timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৫০ key status

এসপি অফিসের পথে মিনাক্ষীরা

সন্দেশখালিতে যেতে না পেরে বসিরহাট এসপি অফিসের উদ্দেশে রওনা দিলেন মিনাক্ষীরা। এসপির কাছে অভিযোগ জানাবেন তাঁরা।

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৪৮ key status

‘পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা করব’

সন্দেশখালির ঘাটে বসে মিনাক্ষী বলেন, ‘‘পুলিশ বেআইনি কাজ করেছে। আমরা ওঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ করব। মহিলা কমিশনেও অভিযোগ করব। আমরা ১৪৪ ধারা ভাঙিনি। তিন জন করে বসতে পারে। আমরা তাই করছি। আমাদের বেআইনি ভাবে গ্রেফতার করা যাবে না।’’

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৪০ key status

শাহজাহানের গ্রেফতারির দাবিতে বিক্ষোভ

মাঝেরপাড়া এলাকায় পুলিশের সামনে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন গ্রামবাসীদের একাংশ। চিৎকার করে তাঁরা অভিযোগ জানান। শাহজাহানের ফাঁসির দাবি করেন। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। 

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৩৮ key status

সুজিতদের কাছে নালিশ

সুজিত, পার্থদের কাছে গ্রামবাসীরা নালিশ, অভিযোগ জানাচ্ছেন। এক মহিলা মন্ত্রীদের সামনে কেঁদে ফেলেন। সেতু, পানীয় জল সংক্রান্ত নানা সমস্যার কথা মন্ত্রীদের জানান গ্রামবাসীরা।

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:১৫ key status

ঘাটে বসে পড়লেন মিনাক্ষীরা

পুলিশি বাধার মুখে সন্দেশখালি ঘাটে বসে পড়লেন মিনাক্ষীরা। তাঁদের গ্রামে ঘুরতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ। প্রতিবাদ জানিয়ে ঘাটে বসে পড়েন তিনি। পুলিশ এলাকা ঘিরে রেখেছে।

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:০৪ key status

২০ দিনের মধ্যে পদক্ষেপের আশ্বাস

সন্দেশখালিতে ঢালাই রাস্তা ভেঙে দিয়ে মাঠের জমিতে নোনা জল ঢোকানোর অভিযোগ উঠেছে। সেই স্থান পরিদর্শন করেন সুজিত, পার্থেরা। ২০ দিনের মধ্যে রাস্তা সারাইয়ের আশ্বাস দিয়েছেন তাঁরা।

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:৪৯ key status

স্থানীয় নেতার বাড়িতে সুজিত, পার্থ

সন্দেশখালির স্থানীয় নেতা সুজয় মণ্ডলের বাড়িতে গিয়েছেন সুজিত, পার্থেরা। সেখান থেকে বেরিয়ে পার্থ বলেন, ‘‘সুজয় আমাদের কর্মী। ও এখন আমাদের সঙ্গে এলাকার মানুষের কাছে যাবে।’’

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:৪৪ key status

আবার উত্তেজনা সন্দেশখালিতে

শনিবার নতুন করে উত্তপ্ত সন্দেশখালি। মাঝেরপাড়া এলাকায় ঝাঁটা, লাথি হাতে রাস্তায় নেমেছেন মহিলারা। শাহজাহানের শাস্তি চেয়েছেন তাঁরা।

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:৩৬ key status

‘পার্থ, সুজিত শাহজাহানের দলের লোক’

পার্থ ভৌমিক, সুজিত বসুরা সন্দেশখালিতে গিয়েছেন। সে প্রসঙ্গে প্রশ্ন করলে মিনাক্ষী বলেন, ‘‘পার্থ, সুজিত শাহজাহানের দলের লোক। ওঁরা মানুষকে ভয় দেখাতে এসেছেন। যখন জমি কেড়ে নেওয়া হচ্ছিল, তখন ওঁরা কোথায় ছিলেন? ‘দুয়ারে সরকার’ কোথায় ছিল?’’

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:৩৩ key status

কী বললেন মিনাক্ষী

মিনাক্ষী বলেন, ‘‘১৪৪ ধারা জারি থাকলে আমি একা যেতে পারি। মানুষের সঙ্গে কথা বলতে তো বাধা নেই। আমরা যেতে চাইছি। যেতে দিচ্ছে না। আমাদের কাছে লিখিত অভিযোগ আছে। পুলিশের সঙ্গে কথা বলতে চাই। মানুষ জমি ফেরত চায়। পুলিশের শাস্তি চায়। পুলিশ মানুষের কথা শোনে না। আমরা সে বিষয়ে কথা বলতে এসেছি।’’

পঞ্চায়েত সদস্য এবং প্রধানদের বিরুদ্ধে মামলাও করতে চান বলে জানান মিনাক্ষী। তিনি বলেন, ‘‘জমিতে নোনা জল ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ তা বার করে দিক।’’

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:৩০ key status

পুলিশের সঙ্গে মিনাক্ষীদের বচসা

নিরাপদ সর্দারের বাড়ি থেকে বেরিয়ে সন্দেশখালির বিভিন্ন এলাকায় ঘুরছিলেন মিনাক্ষীরা। পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। পুলিশের সঙ্গে মিনাক্ষী বচসায় জড়িয়ে পড়েন। পুলিশকে উদ্দেশ করে তাঁকে বলতে শোনা যায়, ‘‘আপনি বেআইনি কাজ করছেন। আমার নামে কোনও অপরাধের মামলা আছে? কেন আমাকে যেতে দেবেন না?’’ মিনাক্ষী একা গ্রামে যেতে চেয়েছিলেন। তাঁকে যেতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ।

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:১৫ key status

মিনাক্ষীকে আটকাল পুলিশ

সন্দেশখালিতে মিনাক্ষীকে আটকে দিল পুলিশ। এলাকা ছেড়ে তাকে চলে যেতে বলা হচ্ছে। পুলিশের সঙ্গে তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে পড়েছেন বাম যুবনেত্রী। 

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:০৪ key status

‘শাহজাহান অপরাধী কেউ বলেননি’

তৃণমূল বিধায়ক সুকুমার মাহাতো বলেন, ‘‘আমি তিন দিন ধরে সন্দেশখালির পাড়ায় পাড়ায় গিয়েছি। কোথাও ‘ড্যামেজ’ নেই। সবাই বলেছে, ‘আমরা তৃণমূলের লোক। আমরা তৃণমূল করি।’ কোনও ব্যক্তি অপরাধ করলে সেই ব্যক্তি তার সাজা পাবে। শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে ক্ষোভের কথা কেউ বলেননি। শেখ শাহজাহান কোনও অপরাধ করেছেন, এটাও কেউ বলেননি। কেউ কেউ অন্যের মুখে শুনে কিছু কথা বলেছেন। কিন্তু দুর্নীতির কোনও কথা আসেনি।’’

timer শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১২:৫০ key status

কী বলছেন সন্দেশখালির বিধায়ক

সন্দেশখালির বিধায়ক সুকুমার মাহাতো বলেন, ‘‘দলের প্রতি মানুষের কোনও ক্ষোভ নেই। কিছু প্রবাসী নেতার উপরে ক্ষোভ রয়েছে। উত্তম, শিবুদের কাছে গ্রামবাসীরা টাকা পায়। আমাদের দলের নেতারা চাঁদা তুলে সেই টাকা ফেরত দেব। অন্য দলগুলি সন্দেশখালিতে অশান্তি করছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE