Advertisement
২৮ মে ২০২৪
100 Days Work

একশো দিনের কাজে দুর্নীতির নালিশ, বিক্ষোভ

অভিযুক্ত সুপারভাইজ়ারের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। গ্রামের মানুষের দাবি, বিক্ষোভের আঁচ পেয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন তিনি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ব্লক প্রশাসন।

—প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি।

—প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ন্যাজাট শেষ আপডেট: ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ০৮:৫০
Share: Save:

একশো দিনের কাজে দুর্নীতি, স্বজনপোষণের অভিযোগ তুলে প্রকল্পের এক সুপারভাইজ়ারের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রামের মানুষ। শুক্রবার দুপুরে সন্দেশখালি ১ ব্লকের শেয়ারা রাধানগর পঞ্চায়েতের নিত্যবেড়িয়া গ্রামের ঘটনা। দিন কয়েক আগেও একই কারণে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন গ্রামের মানুষ। অভিযুক্ত সুপারভাইজ়ারের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। গ্রামের মানুষের দাবি, বিক্ষোভের আঁচ পেয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন তিনি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ব্লক প্রশাসন।

বিক্ষোভকারীদের তরফে বিপ্লব দাস বলেন, ‘‘রাজ্য সরকার একশো দিনের কাজের বকেয়া টাকা যা দিয়েছে, তাতে মাত্র ১৬ দিনের রোজ পেয়েছি। অথচ, ওই সুপারভাইজ়ারের আত্মীয়েরা অনেকে কাজ না করেও টাকা পেয়েছেন।’’ কয়েক জনের বক্তব্য, যে ক’দিন কাজ করেছিলেন তাঁরা, তার থেকে কম দিনের হিসেব সরকারি নথিতে তুলেছিলেন ওই সুপারভাইজ়ার। সেই টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

বিজেপির মণ্ডল সভাপতি শান্তি দলুই বলেন, ‘‘তৃণমূলের মদতে গ্রামে গ্রামে একশো দিনের কাজের সুপারভাইজ়াররা কারচুপি করেছেন। শ্রমিকদের ঠকিয়ে টাকা আত্মসাৎ করেছেন।’’ এ বিষয়ে সন্দেশখালির বিধায়ক সুকুমার মাহাতো বলেন, ‘‘বিজেপি যেখানে যা কিছু হয়, সব কিছুতে তৃণমূলকে দেখে। আসলে ভোটে হারতে চলেছে বলে পাগলের প্রলাপ বকছে। মানুষকে খেপিয়ে বিক্ষোভ করাচ্ছে।’’

সন্দেশখালি ১ ব্লক প্রশাসন সূত্রের খবর, কয়েক দিন আগে বিডিওর কাছে এলাকার কিছু মানুষ অভিযোগ করেছিলেন, তাঁরা একশো দিনের প্রকল্পে যে ক’দিন কাজ করেছিলেন, তার থেকে কম টাকা পেয়েছেন। তবে দেখা যায়, সরকারি নথিতে যে তথ্য আছে, সেই অনুযায়ী উপযুক্ত প্রাপ্য দেওয়া হয়েছে। বিডিও অফিসের এক আধিকারিক বলেন, ‘‘যাঁদের যতটুকু টাকা বাকি ছিল, শুধু সেটুকু পেয়েছেন। অনেকে আগেই তাঁদের প্রাপ্যের কিছু টাকা পেয়ে গিয়েছিলেন। অল্প যা বাকি ছিল, সেটা এখন পেয়েছেন। তবে পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

নিখোঁজ কিশোরী

অশোকনগর: আত্মীয়ের বাড়িতে ঘুরতে এসে নিখোঁজ হয়ে গেল বছর পনেরোর বাংলাদেশি কিশোরী। বাবা-মায়ের সঙ্গে মাস দু’য়েক আগে অশোকনগরে এসেছিল সে। বুধবার সকাল থেকে খোঁজ মিলছে না। থানায় লিখিত অভিযোগ হয়েছে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, পাসপোর্ট-ভিসা নিয়েই এ দেশে চিকিৎসার জন্য এসেছিল পরিবারটি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Corruption sandeshkhali
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE