Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

হাতে ব্যান্ডেজ বেঁধেই জয়ের কান্ডারি রচিত

বর্ধমানের অরবিন্দ স্টেডিয়ামে ‘ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিল ফর স্কুল গেমস অ্যান্ড স্পোর্টস’-এর পরিচালনায় ৬৪তম রাজ্য স্কুল ভলিবল (অনূর্ধ্ব ১৭) আয়োজিত হচ্ছে।

রচিত ধোলে

রচিত ধোলে

সুপ্রকাশ চৌধুরী
বর্ধমান শেষ আপডেট: ১২ নভেম্বর ২০১৮ ০১:২৭
Share: Save:

দল জেতার পরে উল্লাসে মেতেছে খেলোয়াড়েরা। কিন্তু জয়ের কারিগর সেখান থেকে উধাও। বাজিতে ঝলসে যাওয়া হাতের চিকিৎসা করাতে সে তখন ছুটছে হাসপাতালে।

বর্ধমানের অরবিন্দ স্টেডিয়ামে ‘ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিল ফর স্কুল গেমস অ্যান্ড স্পোর্টস’-এর পরিচালনায় ৬৪তম রাজ্য স্কুল ভলিবল (অনূর্ধ্ব ১৭) আয়োজিত হচ্ছে। রবিবার পুরুষ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয় হুগলি। ফাইনালে উত্তর দিনাজপুরকে ৩-১ সেটে হারিয়ে দেয় তারা। ফাইনালে চমৎকার খেলেন হুগলির রচিত ধোলে। মূলত তার দক্ষতাতেই অনায়াস জয় পায় দল। কিন্তু যে হাতের জোরালো শটে সে এ দিন বাজিমাত করল, দু’দিন আগে সেই হাতই ঝলসে গিয়েছিল বাজির আগুনে।

রচিতের বাবা সুদীপ্ত ধোলে জানান, শুক্রবার বাজি পোড়াতে গিয়ে ডান হাত পুড়ে যায় ছেলের। সেই হাত নিয়েই শনিবার রাজ্য স্কুল ভলিবল খেলতে বর্ধমানে আসে সে। হাতে ব্যান্ডেজ বেঁধেই কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনাল খেলে দলকে ফাইনালে তোলে সে।

ফাইনাল খেলতে নামার আগে রচিতের হাতের অবস্থা আরও খারাপ হয়। কিন্তু মনের জোরে তা উপেক্ষা করেই সে মাঠে নামে। যন্ত্রণা ভুলে একের পর এক জোরালো শট ফেলতে থাকে বিপক্ষের বক্সে। খেলার পরেই অবশ্য তাকে দৌড়তে হয় হাসপাতালে। ব্যান্ডেজ বেঁধে এসে রচিত বলে, ‘‘আমি না খেললে দল বিপদে পড়তে পারে বলে মনে হয়েছিল। তাই মাঠে নেমেছিলাম। জেতার আনন্দে যন্ত্রণা কমে গিয়েছে।’’ তার এই লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়েছেন স্টেডিয়ামে হাজির সকলেই। এই প্রতিযোগিতায় মেয়েদের বিভাগেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছে হুগলি। তারা ফাইনালে উত্তর ২৪ পরগনাকে ৩-১ সেটে হারায়। প্রতিযোগিতায় পুরুষ বিভাগে তৃতীয় স্থান পেয়েছে বর্ধমান। মেয়েদের বিভাগে তৃতীয় স্থান হাওড়ার। মাঠে ছিলেন ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিল ফর স্কুল গেমস অ্যান্ড স্পোর্টসের আধিকারিক বিকাশ মণ্ডল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE