Advertisement
০৫ ডিসেম্বর ২০২২
Student

মুসুর ডালের দানায় ভারতের মানচিত্র, রবীন্দ্রনাথের ছবি এঁকে জাতীয় সম্মান ছাত্রের

মুসুর ডালের দানায় আঁকা তাঁর দু’টি ছবিই জাতীয় স্তরের সম্মান পেয়েছে। ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম উঠেছে শুভেন্দুর।

ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসের স্বীকৃতি হাতে নিয়ে শুভেন্দু হালদার।

ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসের স্বীকৃতি হাতে নিয়ে শুভেন্দু হালদার। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
ডায়মন্ড হারবার শেষ আপডেট: ০৯ মে ২০২১ ১৪:২৭
Share: Save:

এক চিলতে মুসর ডালের দানায় গোটা ভারতের মানচিত্র এঁকেছিলেন ডায়মন্ড হারবারের এক ছাত্র। সেই চেষ্টা জাতীয় সম্মান এনে দিল তাঁকে।

Advertisement

ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম উঠেছে ওই ছাত্রের। ভারতের মানচিত্রের পাশাপাশি মুসুর ডালের দানায় রবীন্দ্রনাথের ছবিও এঁকেছিলেন তিনি। দু’টি ছবিই জাতীয় স্তরের সম্মান পেয়েছে।

ডায়মন্ড হারবারের ফটিকচাঁদ কলেজের ওই ছাত্রের নাম শুভেন্দু হালদার। বাড়ি চাঁদ নগরে। বাংলায় সাম্মানিক স্তরের পড়াশোনা করছেন তিনি। কলেজ আপাতত বন্ধ হওয়ায় হাতে অঢেল সময়। সেই অবসরেই দীর্ঘ দিনের শখে মন দেন তিনি। ধান, গম, মুসুর ডালের দানায় ছবি আঁকার চেষ্টা করে সফলও হন।

সম্প্রতি নিজের কাজের কিছু ছবি তুলে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে পাঠিয়েছিলেন শুভেন্দু। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি তাদের তরফে শুভেন্দুকে জানানো হয়, তাঁর কাজ মনোনীত হয়েছে। দিন কয়েক আগে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডের তরফে তাঁর বাড়িতে শংসাপত্র এবং মেডেল পৌঁছে দেওয়া হয়।

Advertisement

অবসরে করা শিল্পচর্চার এই স্বীকৃতি পেয়ে আপ্লুত শুভেন্দু। জানিয়েছেন, পরিবারের আর্থিক অস্বচ্ছলতা সত্ত্বেও পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছেন। বাবা সঞ্জিৎ হালদার পেশায় রাজমিস্ত্রি। মা বিড়ি বাঁধার কাজ করেন। তিন ভাইয়ের মধ্যে শুভেন্দু মেজো। ছোট থেকেই আঁকার প্রতি ঝোঁক ছিল। জাতীয় স্বীকৃতি পেয়ে উৎসাহিত শুভেন্দু বলেন, ‘‘আগামী দিনে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসেও জায়গা করে নিতে চাই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.