Advertisement
১৩ জুলাই ২০২৪

অসুস্থ গরুর দুধ খেয়ে জলাতঙ্ক আতঙ্ক পোলবায়

আতঙ্ক দূর করতে জেলা স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে এলাকায় সচেতনতা শিবির ও শিশুদের স্বাস্থ্যের নজরদারির জন্য প্রতিনিধিদল পাঠানো হয়।

আতঙ্ক: শিশুদের নিেয় হাসপাতালে লাইন। নিজস্ব চিত্র

আতঙ্ক: শিশুদের নিেয় হাসপাতালে লাইন। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
পোলবা শেষ আপডেট: ৩১ মার্চ ২০১৯ ০২:৪৭
Share: Save:

কুকুরের কামড়ে অসুস্থ গরুর দুধ খাওয়ার পর জলাতঙ্ক রোগের আতঙ্ক ছড়াল পোলবার সুগন্ধায়।

আতঙ্ক দূর করতে জেলা স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে এলাকায় সচেতনতা শিবির ও শিশুদের স্বাস্থ্যের নজরদারির জন্য প্রতিনিধিদল পাঠানো হয়। চুঁচুড়া হাসপাতালের সুপার উজ্জ্বলেন্দুবিকাশ মণ্ডল জানান, ‘‘গরুটির অসুখ সম্পর্কে বিশদে কিছু জানা যায়নি। তবে, দুধ গরম করার পর সব জীবাণু নষ্ট হয়ে যায়। আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। এলাকাবাসীর দাবী অনুযায়ী শিশুদের জলাতঙ্ক রোগ প্রতিরোধক টিকা দেওয়া হয়েছে। এলাকায় স্বাস্থ্য দফতরের কর্মীরা নজরদারি চালাচ্ছেন।’’

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সুগন্ধার বাসিন্দা শান্তি পাল গরুর দুধের ব্যবসা করেন। স্থানীয় বাসিন্দারা শিশুদের খাওয়ানোর জন্য শান্তিদেবীর কাছ থেকে দুধ কিনতেন। কয়েকদিন আগে শান্তিদেবীর একটি গরুকে কুকুরে কামড়েছিল। শুক্রবার রাতে মারা যায় গরুটি। ওই গরুর দুধ যারা কিনতেন, তাঁরা বিষয়টি জানতে পেরে শান্তিদেবীর বাড়িতে হাজির হয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

ক্রেতাদের অভিযোগ, জলাতঙ্ক রোগে আক্রান্ত হয়ে যখন গরুটির মৃত্যু হয়েছে তখন ওই গরুর দুধ খেলে শিশুরা ওই একই রোগে আক্রান্ত হতে পারে।

শান্তিদেবী বলেন, ‘‘কয়েকদিন ধরেই একটা গরু অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। পশু চিকিৎসক জানিয়েছিলেন, বিষাক্ত কিছুর কামড়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে সে। ওষুধ খাওয়ানো হচ্ছিল তাকে। দুধ দোওয়াও বন্ধ করে দিয়েছিলাম। হঠাৎ গরুটি মারা যাওয়ায় আতঙ্ক ছড়ায়।’’

শনিবার সকালে প্রায় ২০টি শিশুকে নিয়ে পরিবারের সদস্যরা চুঁচুড়া হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে যান। এ দিন সকাল থেকে হাসপাতালের জলাতঙ্ক প্রতিরোধক বিভাগের সামনে ছিল লম্বা লাইন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Rabbis Dog Bite Cow Milk Child
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE