Advertisement
২১ জুন ২০২৪

ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণা, ধৃত তিন

বিজ্ঞাপন দেখে একটি দামী মোবাইল কেনার জন্য ৩৫ হাজার টাকা খরচ করলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু হাতে এল না সেই মোবাইল। এমন প্রতারণার অভিযোগের তদন্তে নেমে তিন যুবককে গ্রেফতার করল সল্টলেক সাইবার থানার পুলিশ। ধৃতেরা হল, রজত বসু, ইমরান মণ্ডল, সুমন পাল। ধৃতদের বৃহস্পতিবার বিধাননগর আদালতে তোলা হলে পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ হয়।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৫ ১৮:২৯
Share: Save:

বিজ্ঞাপন দেখে একটি দামী মোবাইল কেনার জন্য ৩৫ হাজার টাকা খরচ করলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু হাতে এল না সেই মোবাইল। এমন প্রতারণার অভিযোগের তদন্তে নেমে তিন যুবককে গ্রেফতার করল সল্টলেক সাইবার থানার পুলিশ। ধৃতেরা হল, রজত বসু, ইমরান মণ্ডল, সুমন পাল। ধৃতদের বৃহস্পতিবার বিধাননগর আদালতে তোলা হলে পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ হয়।

ধৃতদের কাছ থেকে ল্যাপটপ, মোবাইল, পেন ড্রাইভ, ব্যাঙ্কের পাসবুক ও এটিএম কার্ড বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ওএলএক্সে এক ব্যক্তি একটি আই ফোন ৬ মাত্র ৩৫ হাজার টাকায় বিক্রি করতে চান। সেই বিজ্ঞাপন দেখে সেই ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করেন জগবিন্দর সিংহ। দু’পক্ষের কথা হয়।

এর পরে বিজ্ঞাপনদাতা জগবিন্দরকে জানান, তিনি মোবাইল ক্যুরিয়র মারফৎ পাঠিয়েছেন। সেই ক্যুরিয়র সব নথিও জগবিন্দরকে পাঠিয়ে দেন ওই বিজ্ঞাপনদাতা। তিনি একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের নম্বরও পাঠিয়ে দেন। জগবিন্দর সেই অ্যাকাউন্টে টাকাও পাঠিয়ে দেয়। কিন্তু মোবাইল হাতে পাননি। এর পরেই হরিয়ানাবাসী জগবিন্দরের পরিবারের তরফে পাঁচ নম্বর সেক্টরের সেই ক্যুরিয়র সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তখন দেখা যায় বিজ্ঞাপনদাতার পাঠানো নথি ভুয়ো। এর পরেই তাঁরা সল্টলেক সাইবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

পুলিশের দাবি, এটি একটি চক্র। কম দামে দামী সামগ্রী বিক্রির ফাঁদ পেতে একাধিক লোককে প্রতারিত করেছে ধৃতদের দল। জেরায় ধৃতেরা নিজেদের দোষ স্বীকার করেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE