Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

মেয়ে জামাই মৃত জানায়নি কেউ

গত ১০ জুন গভীর রাতে উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলার শিকারপুরে অপূর্ব মজুমদার নামের এক ব্যক্তির রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ৷ তাকে খুনের অভিযোগে প

নিজস্ব সংবাদদাতা
জলপাইগুড়ি ১৬ জুন ২০১৭ ১৪:১০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

জামাই খুন হয়েছেন পাঁচদিন আগে৷ তাকে খুনে অভিযুক্ত মেয়ের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের পরেও পেরিয়ে গিয়েছে দু’দিন। অথচ, পুলিশ প্রশাসনের তরফে তাঁদের কোনও খবরই দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ তুললেন পিঙ্কি মজুমদারের বাবা-মা৷ প্রতিবেশীর কাছে খবর পেয়ে নিজেরাই থানায় গিয়ে মেয়ে ও জামাইয়ের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন তারা৷ এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ জলপাইগুড়ির ইন্দিরা কলোনির বাসিন্দা ওই দম্পতি৷ ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারাও৷

গত ১০ জুন গভীর রাতে উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলার শিকারপুরে অপূর্ব মজুমদার নামের এক ব্যক্তির রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ৷ তাকে খুনের অভিযোগে পরের দিন তার স্ত্রী পিঙ্কিকে গ্রেফতার করা হয়৷ আদালতে তোলা হলে পিঙ্কিকে ১৪ দিনের বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়৷ মঙ্গলবার রায়গঞ্জ জেলা সংশোধনাগারে শৌচাগারের পেছনে পিঙ্কির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়৷

পিঙ্কির বাবা নিমাই রায় বলেন, “খবরের কাগজ দেখে এক প্রতিবেশী বুধবার রাতে আমায় বিষয়টি জানায়৷ বৃহস্পতিবার সকাল হতেই ছুটে যাই স্থানীয় কাউন্সিলরের কাছে৷ তিনি জানান, আমরা ওই এলাকায় থাকি কিনা সে ব্যাপারে থানা থেকে তার কাছে খোঁজ নেওয়া হয়েছিল৷ এ কথা শোনার পরেই জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানায় যাই৷ সেখানকার এক অফিসার রায়গঞ্জ থানায় ফোনে কথা বলিয়ে দেন৷ তখনই গোটা বিষয়টা জানতে পারি৷” এ দিন দুপুরেই নিমাইবাবু ও তার স্ত্রী মালতীদেবী এ দিন দুপুরেই রায়গঞ্জে রওনা হয়েছেন৷

Advertisement

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর ছয়েক আগে অপূর্ব মজুমদারের সঙ্গে পিঙ্কির বিয়ে হয়৷ পিঙ্কির মা মালতিদেবীর অভিযোগ, ‘‘বিয়ের পর আমরা জানতে পারি জামাই কোনও কাজ করে না৷ একে ওকে ঠকিয়ে টাকা রোজগার করে৷ আমার মেয়ে তার প্রতিবাদ করলে তার ওপর অত্যাচার করতো৷’’ নিমাইবাবুর অভিযোগ, ‘‘কয়েক মাসে আগে অপূর্ব আমার থেকে এক লক্ষ টাকা চায়৷ আমি দিতে অস্বীকার করলে মেয়ের ওপর অত্যাচার বেড়ে যায়৷’’ সম্প্রতি শিকারপুরের এক মহিলার সঙ্গে অপূর্ববাবু সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন বলে অভিযোগ তাদের৷ নিমাইবাবুর কথায়, ‘‘তার জেরেই ওই মহিলার বাড়ির কেউ অপূর্বকে খুন করে থাকতে পারে৷ আমার মেয়ে খুনি নয়৷’’

পরপর দু’টি মৃত্যুর ঘটনা ঘটার পরও পিঙ্কির বাবা-মাকে কেন তা জানানো হল না তাই ভেবে বিস্মিত ইন্দিরা কলোনির মানুষ। স্থানীয় বাসিন্দা রাখাল দাস বলেন, ‘‘আমরা বুধবার খবরের কাগজ পড়ে সবটা জানতে পারি৷ পাড়ার লোকেরাও অনেকেই কাগজ দেখে জানতে পারে৷ কিন্তু বুঝতে পারছিলাম না ঘটনাটা সত্যি কিনা৷ ভয়ে ভয়ে একজন রাতে নিমাইবাবুকে খবরটা দেন৷’’

জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার এক পুলিশ কর্তা বলেন, ‘‘বুধবার রাতে রায়গঞ্জ থানা থেকে বিষয়টি আমাদের জানানো হয়৷ তারপরই স্থানীয় কাউন্সিলারের মাধ্যমে পিঙ্কির বাড়ির লোকেদের কাছে খবর পাঠানো হয়৷’’ যদিও জলপাইগুড়ি পুরসভার –১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলার সম্রাট রায় চৌধুরী বলেন, ‘‘পুলিশ ফোন করে আমাদের এলাকায় নিমাই রায় নামে কেউ থাকেন কি না, কিংবা পিঙ্কি নামে তার কোনও মেয়ে রয়েছে কি না সে ব্যাপারে আমার কাছে খোঁজ করে ঠিকই, কিন্তু পরিষ্কারভাবে কিছু বলেনি৷ তাহলে বুধবার রাতেই ওদের খবর দিতাম৷’’



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement