Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০২ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Bandel Station: স্তব্ধ ব্যান্ডেল, কাজের সঙ্গে শুরু দুর্ভোগও

রেলের দাবি, এর ফলে লাইনে জট কমবে, একই ভাবে বিভিন্ন রুটে ট্রেন ঘুরিয়ে দেওয়ার প্রক্রিয়াও সহজ হবে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৮ মে ২০২২ ০৭:১৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
ওভারব্রিজে অপেক্ষা করছে যাত্রীরা।

ওভারব্রিজে অপেক্ষা করছে যাত্রীরা।

Popup Close

ঘোষিত পরিকল্পনা অনুযায়ী শুক্রবার বেলা ৩টেয় বন্ধ করে দেওয়া হল ব্যান্ডেল স্টেশন। এই জংশন বন্ধ থাকবে সোমবার বেলা ৩টে পর্যন্ত। এ দিন ব্যান্ডেলে টিকিট বিক্রি বন্ধ হয় বেলা ২টোয়। তখনই ব্যান্ডেল-হাওড়া লোকাল এবং আড়াইটে নাগাদ হাওড়া-কাটোয়া লোকাল স্টেশন ছেড়ে যায়। তার পরে স্টেশন-চত্বর যাত্রী-শূন্য। তবে বাড়তি ভোগান্তি শুরু হয়েছে বর্ধমানের মতো স্টেশনে।

ব্যান্ডেলে এ দিন রেলের কর্মী এবং আধিকারিকদের তৎপরতা ছিল তুঙ্গে। পুরনো রুট রিলে সিস্টেম পাল্টে নতুন ব্যবস্থা চালু করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে সেখানে। রেলের দাবি, এর ফলে লাইনে জট কমবে, একই ভাবে বিভিন্ন রুটে ট্রেন ঘুরিয়ে দেওয়ার প্রক্রিয়াও সহজ হবে। সোমবার থেকে ব্যান্ডেলে বদলে যাবে প্ল্যাটফর্মের নম্বরও। ১-এ, ১-বি এবং ১ নম্বর প্ল্যাটফর্ম হিসেবে চিহ্নিত প্ল্যাটফর্ম অতঃপর পরিচিত হবে যথাক্রমে ১, ২ এবং ৩ নম্বর হিসেবে। ২ এবং ৩ নম্বর প্ল্যাটফর্ম বদলে গিয়ে হচ্ছে যথাক্রমে ৪ এবং ৫ নম্বর। ৪ এবং ৫ নম্বর প্ল্যাটফর্মের পরিবর্তিত নম্বর হবে ৬ এবং ৭।

রেল সূত্রের খবর, আবহাওয়া এবং অন্য কোনও দুর্বিপাক বাধা না-দিলে কাল, রবিবারের মধ্যেই সব কাজ সেরে ফেলার চেষ্টা চালানো হবে। সে-ক্ষেত্রে সপ্তাহের প্রথম দিনে লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকায় যাত্রীদের ভোগান্তির যে-আশঙ্কা রয়েছে, তা অনেকটা কমবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Advertisement

এ দিন দুপুরে বর্ধমান স্টেশনে দুর্ভোগে পড়ার কথা জানিয়েছেন যাত্রীরা। ওই স্টেশনের নবনির্মিত ফুট-ওভারব্রিজ এবং প্ল্যাটফর্মে অনেক যাত্রীকে ট্রেনের জন্য হাপিত্যেশ করে বসে বা দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছে। দুপুরে প্ল্যাটফর্মে থিকথিকে ভিড়।

গুসকরা থেকে বেলা পৌনে ১টা নাগাদ বর্ধমান স্টেশনে পৌঁছন সুমন পাত্র। বলেন, ‘‘শ্রীরামপুর যাব। কিন্তু বর্ধমানে এসে দেখি, খন্যান পর্যন্ত মেন লাইনের ট্রেন চলছে। সেই ট্রেন রয়েছে বেলা ৩টে ১৫ মিনিটে। সেখান থেকে কী ব্যবস্থা করব, সেটাই ভাবছি।’’ সাঁইথিয়া থেকে আসা শতদল বসু বলেন, ‘‘রিষড়া যাব। কিন্তু বর্ধমান স্টেশনে এসে দেখি, হাওড়া যাওয়ার মেন লাইনের শেষ লোকালে পা ফেলার জায়গা নেই। অগত্যা কর্ড লাইনে হাওড়া গিয়ে রিষড়া ফেরার চেষ্টা করতে হবে।’’

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, শনি ও রবিবার ভোর ৫টা ৫ মিনিট থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ১৪ জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালানো হবে বর্ধমান ও খন্যানের মধ্যে। হাওড়া ও চুঁচুড়া লাইনেও ১৩ জোড়া বিশেষ ট্রেন চলবে। ত্রিবেণী ও কাটোয়া রুটেও মিলবে স্পেশাল ট্রেন। দুন ও মিথিলা এক্সপ্রেসকে কর্ড লাইন দিয়ে চালানো হবে রবিবার পর্যন্ত।

পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক একলব্য চক্রবর্তী এ দিন বলেন, ‘‘যাত্রীদের অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিক ভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। তবে ব্যান্ডেলে কাজ সম্পূর্ণ হয়ে গেলে ট্রেন চলাচল মসৃণ হবে। যাত্রীদের ভোগান্তি কমবে। এই সুযোগে অন্য কয়েকটি লাইনেও জরুরি মেরামতির কাজ সেরে নেওয়া হচ্ছে।’’

আদ্রা স্টেশনে নন-ইন্টারলকিংয়ের কাজ চলায় দু’সপ্তাহ ধরে ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রিত করা হচ্ছে। বেশ কিছু ট্রেন বাতিল করা ছাড়াও একাধিক দূর পাল্লার ট্রেনকে খড়্গপুর হিজলি দিয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়ছে। আগামী সোমবার পর্যন্ত ওই কাজের জন্য ট্রেন চলাচল ব্যাহত হবে। তবে ওই কাজের জন্য ব্যান্ডেলের মতো আদ্রা স্টেশন সম্পূর্ণ বন্ধ রাখার প্রয়োজন পড়ছে না।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তেফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement