• রেশমী প্রামাণিক
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শীত এসে গেল, বাড়িতেই চলুক ফুট স্পা

pedicure
ছবি: অনির্বাণ সাহা।

Advertisement

শীত পড়লে পায়ের সমস্যা বাড়ে তা আমাদের কারও অজানা নয়। একে তো পা ঢাকা জুতো আর মোজা পরার ফলে পায়ে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। অনেক সময় পা ধুলেও সেই গন্ধ যায় না। আর পায়ের পাতার চামড়া ওঠা কিংবা পা ফাটা এড়াতে আমরা কোনও ক্রিম ব্যবহার করলেও পা ঠিক মতো পরিষ্কার না থাকার কারণে কাজ ভাল হয় না। এর জন্য প্রয়োজন হয় ফুট স্পা, পেডিকিওর বা ফুট মাসাজের। এর ফলে স্ট্রেসও কাটে। পায়ের ব্যাথা থেকে খানিক হলেও রেহাই পাওয়া যায়। আর পায়ের সুন্দর কোমল ভাবও বজায় থাকে। ফাটা পা নিয়ে কারও কাছে অস্বস্তিতেও পড়তে হয় না।

যেমন বলা যায় র‍্যাডিশনাল ফুট মাসাজের কথা। এই পদ্ধতিতে হাঁটু থেকে পায়ের পাতা পর্যন্ত মাসাজ করা হয়। যা ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে উপযোগী। এই পদ্ধতিতে আকুপ্রেশার পয়েন্ট গুলোকে স্টিমুলেট করা হয়। ফলে ক্লান্তি দূর হয়। কিছু ক্ষেত্রে আবার পিউমিক স্টোন দিয়ে পায়ের বিভিন্ন অংশে হালকা মাসাজ করা হয়।  যার ফলে পায়ের পেশি শক্ত হয় এবং ত্বক ভাল থাকে।

আরও পড়ুন: জেনে নিন চোখের কোলের কালি দূর করার ৬ গোলাপ জল টোটকা

হাতের কাছে সামান্য কিছু উপকরণ থাকলে বাড়িতেই করতে পারবেন পেডিকিওর।

গামলায় ঈষদুষ্ণ গরম জল নিয়ে সামান্য নুন বা লেবুর রস দিয়ে ১৫ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। এর ফলে পায়ের ময়লা খানিক নরম হয়। এরপর পিউমিক স্টোন দিয়ে ঘষলে সহজেই ময়লা উঠে আসে। এ বার অল্প চিনি, টক দই, শুকনো কমলা লেবুর খোসা দিয়ে স্ক্রাব বানিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট লাগিয়ে রেখে ভাল করে ধুয়ে নিয়ে কোনও একটি ফুট ক্রিম লাগিয়ে নিন বা অলিভ অয়েল দিয়ে মাসাজ করে নিন। চাইলে নখ কেটে পুরনো নেলপলিশ তুলে পছন্দ মতো নতুন রং লাগিয়ে নিতে পারেন।  

আরও পড়ুন: ২০১৭-র নতুন ফ্যাশন ট্রেন্ড নাকি এগুলিই! ট্রাই করবেন নাকি!

শীতকালে ঢাকা জুতো পরার জন্য পায়ের দুর্গন্ধের সমস্যা প্রায় সকলেরই হয়। সে ক্ষেত্রে রাত্রে শোওয়ার আগে প্রতিদিন গরম জলে অল্প মধু আর গোলাপ জল মিশিয়ে বেশ খানিকক্ষণ পা ডুবিয়ে রাখুন। এতে পায়ে রক্ত সঞ্চালন ভাল হবে, ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন থেকে রেহাই পাবেন এবং সারাদিনের স্ট্রেসও খানিক কমবে।

মডেল- সায়ন্তনী

মেকআপ- প্রীতম  

লোকেশন সৌজন্যে- হেড টার্নার্স স্পোর্টস স্যালোঁ, গড়িয়াহাট।

ছবি- অনির্বাণ সাহা  

 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন