Advertisement
২৩ মে ২০২৪
Imran Khan

সন্ত্রাসবাদ ও পাক সেনায় নজর দিল্লির

ভারত এখনও সরকারি ভাবে ইমরানের গ্রেফতার নিয়ে মন্তব্য করেনি। পরিস্থিতির দিকে সতর্ক নজর রাখা হচ্ছে। গোয়েন্দা সূত্রের মতে, এই জঙ্গিদের নিশানা মূলত কাশ্মীর উপত্যকা।

An image of Imran Khan

ইমরান খানকে গ্রেফতার করার পরে পাকিস্তানে নিরবচ্ছিন্ন হিংসায় উদ্বিগ্ন সাউথ ব্লক। ফাইল ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১১ মে ২০২৩ ০৮:৫৮
Share: Save:

ইমরান খানকে গ্রেফতার করার পরে পাকিস্তানে নিরবচ্ছিন্ন হিংসায় উদ্বিগ্ন সাউথ ব্লক। নিয়ন্ত্রণরেখা ও আন্তর্জাতিক সীমান্ত বরাবর সতর্কতা এবং প্রহরা আরও কড়া করার নির্দেশ দিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের মতামত, পাকিস্তানের মতো একটি দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যদি হাতের বাইরে চলে যায়, তা গোটা উপমহাদেশকেই অস্থির করে তুলতে পারে। বাড়বাড়ন্ত হবে জঙ্গি গোষ্ঠীর। বিশেষজ্ঞদের দাবি, দেশের অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হওয়ায় নজর ঘোরাতে সীমান্তে উত্তেজনা তৈরি করতে পারে পাক সেনাও। আমজনতার রোষ থেকে বাঁচতে ভারতের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি করে পারে পাকবাহিনী। এই অবস্থায় সীমান্তে সংঘর্ষ একেবারেই কাম্য নয় ভারতের।

ভারত এখনও সরকারি ভাবে ইমরানের গ্রেফতার নিয়ে মন্তব্য করেনি। পরিস্থিতির দিকে সতর্ক নজর রাখা হচ্ছে। অতীতে দেখা গিয়েছে, পাকিস্তানে হিংসা বাড়লে তার সুযোগ নিয়ে লস্কর ই তইবা, জইশ ই মহম্মদ এবং হিজবুল মুজাহিদিনের মতো সংগঠনগুলির হাত শক্ত হয়। পাকিস্তান থেকে জঙ্গি অনুপ্রবেশ বাড়ে। গোয়েন্দা সূত্রের মতে, এই জঙ্গিদের নিশানা মূলত কাশ্মীর উপত্যকা। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে বলা হচ্ছে গত এক মাসে কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদী সক্রিয়তা ধীরে ধীরে বেড়েছে। পুঞ্চ এবং রাজৌরিতে ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছেন। গ্রেনেড লঞ্চার এবং অ্যাসল্ট রাইফেল নিয়ে তৈরি হয়েই ঢুকেছেজঙ্গিরা। সূত্রের খবর, সম্প্রতি পাক অধিকৃত কাশ্মীরে বর্ডার অ্যাকশন টিম (ব্যাট)-এর জওয়ানদের সংখ্যা বাড়িয়েছে ইসলামাবাদ। নতুন করে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন এলাকায় জঙ্গি লঞ্চপ্যাডগুলি সক্রিয়করার করার চেষ্টা হচ্ছে বলেও গোয়েন্দা সূত্রে খবর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE