×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

আন্তর্জাতিক

গেটস দম্পতির বিচ্ছেদ, যাবতীয় জল্পনা এখন সাড়ে ১৪ হাজার কোটির যৌথ সম্পত্তি নিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৫ মে ২০২১ ১৩:৩৪
বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস তাঁদের ২৭ বছরের বিবাহিত জীবনে সম্প্রতি ইতি টানলেন।

টুইটারে একত্রেই বিচ্ছেদের ঘোষণা করেছেন গেটস ফাউন্ডেশনের দুই কর্তা বিল এবং মেলিন্ডা।
Advertisement
এত দীর্ঘ দাম্পত্য কাটানোর পর এমন সিদ্ধান্ত স্বাভাবিক ভাবেই সকলকে অবাক করে তুলেছে। এর বাইরে আরও একটি বিষয় এখন চর্চার কারণ হয়ে উঠেছে।

বিল এবং মেলিন্ডার বিশাল সম্পত্তির ভাগ কী ভাবে হবে? তাঁরা কে কত টাকা পাবেন?
Advertisement
১৯৮৭ সালে প্রথম দেখা বিল এবং মেলিন্ডার। বিলের মাইক্রোসফট সংস্থায় সে বছরই প্রোডাক্ট ম্যানেজার হয়ে যোগ দিয়েছিলেন মেলিন্ডা।

নিউইয়র্কের একটি বিজনেস ডিনারের আসরে হাজির ছিলেন দু’জনেই। তারপর ৭ বছরের প্রেম শেষে ১৯৯৪ সালে বিয়ে করেন দু’জনে।

একসঙ্গে গেটস ফাউন্ডেশনেরও প্রতিষ্ঠা করেছেন দু’জন। সিয়াটলে ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠিত সেই সংস্থা গত ২১ বছরে কোটি কোটি ডলার খরচ করেছে বিভিন্ন দেশকে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে উন্নত করতে।

৩ সন্তান রয়েছে দম্পতির। তাঁদের দু’জনেই বিশাল অঙ্কের সম্পত্তির মালিক। বিচ্ছেদের পর সেই সম্পত্তি দু’জনের মধ্যে কী ভাবে ভাগ হবে?

ফোর্বসের তথ্য অনুযায়ী, প্রায় সাড়ে ১৩ হাজার কোটি ডলারের মালিক বিল। বিশ্বের চতুর্থ ধনী ব্যক্তি তিনি। এই সম্পত্তির মধ্যে আবার মেলিন্ডারও অংশীদারি রয়েছে।

২০০০ সালে বিল এবং মেলিন্ডা দু’জনে মিলে বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। নিজেদের বেশির ভাগ সম্পত্তিই তাঁরা এই সংস্থায় বিনিয়োগ করেছেন।

২০২০ সালের হিসাব অনুযায়ী এই সংস্থার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ৫ হাজার ১০০ কোটি ডলার।

যৌথ ভাবে বিল এবং মেলিন্ডার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১৪ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। বিচ্ছেদের পর এই বিশাল পরিমাণ সম্পত্তি দু’জনের মধ্যে ভাগ করা মোটেই সহজ হবে না বলেই মনে করছেন তাঁদের পরিচিতজনরা।

এই বিশাল সম্পত্তি কী ভাবে তাঁদের দু’জনের মধ্যে ভাগ হবে তা এখনও পরিষ্কার নয়।

যৌথ সম্পত্তি ছাড়াও তাঁদের নিজস্ব আলাদা সম্পত্তিও রয়েছে। শুধুমাত্র এই যৌথ সম্পত্তিই দু’জনে ভাগ করে নেবেন, জানা গিয়েছে।

কিং কান্ট্রি সুপিরিয়র কোর্টে এ নিয়ে তাঁরা মামলাও করেছেন। যৌথ সম্পত্তি তাঁদের মধ্যে সমান ভাগ হবে বলে জানিয়েছেন এক আইনজীবী। তবে তার পরিমাণ কত হবে? তা এখনও জানা যায়নি।