×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

ফিরল বিমানে হারিয়ে যাওয়া ওয়ালেট, সঙ্গে আরও কিছু...

সংবাদ সংস্থা
২৮ নভেম্বর ২০১৮ ১৩:৫২
হারিয়ে যাওয়া ওয়ালেটের সঙ্গে এসেছিল এই চিঠিটি। ছবি জেনি শাপাতের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে।

হারিয়ে যাওয়া ওয়ালেটের সঙ্গে এসেছিল এই চিঠিটি। ছবি জেনি শাপাতের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে।

বিমান যাত্রার সময় হারিয়ে ফেলেছিলেন নিজের ওয়ালেট। টাকা পয়সা, পরিচয়পত্র হারিয়ে বোনের বিয়েতে গিয়েও তিনি ছিলেন বেশ মনমরা। হারিয়ে যাওয়া ওয়ালেট ফিরে পাওয়া আশা যখন প্রায় ছেড়ে দিয়েছেন, তখন তাঁর বাড়িতে এল একটি খাম। সেটি খুলে তিনি দেখলেন তাঁর হারিয়ে যাওয়া ওয়ালেট। ভেতরের সব কাগজপত্র, টাকা পয়সা অক্ষত রয়েছে। সঙ্গে রয়েছে অতিরিক্ত ৪০ ডলার।

বোনের বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ফ্রন্টিয়ার এয়ারলাইন্সের বিমানে ওমাহা থেকে লাস ভেগাস যাচ্ছিলেন হান্টার শামাত নামের এক ব্যক্তি। লাস ভেগাস বিমানবন্দর থেকে বেরোনোর পর তিনি দেখলেন তাঁর ওয়ালেটটি হারিয়ে গিয়েছে। ওয়ালেটের ভিতর ছিল ৬০ মার্কিন ডলার, ৪০০ ডলারের একটি পে-চেক ও পরিচয়পত্র। স্বভাবত বিষণ্ণ মনে তিনি পৌঁছলেন বোনের বিয়েতে।

বোনের বিয়ের অনুষ্ঠান শেষ করে হান্টার ও তাঁর মা ফিরবেন ওহামাতে। হান্টারের মা জেনি শামাত চিন্তিত পরিচয়পত্র না থাকায় তাঁর ছেলেকে বিমান যাত্রার অনুমতি মিলবে নাকি। বিমানবন্দরে ঘণ্টা খানেকের জেরার পর শেষ অবধি তাঁকে বিমানযাত্রার অনুমতি দেওয়া হল।

Advertisement

আরও পড়ুন: ইউএফও থেকে ঘূর্ণিঝড়, ককপিট থেকে যে সব বিচিত্র জিনিস দেখতে পান পাইলটরা!

বাড়ি ফেরার একদিন পর একটি খাম এল হান্টারের বাড়িতে। খাম খুলে নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না তিনি। খামের ভেতর তাঁর হারিয়ে যাওয়া সেই ওয়ালেট। ঝটপট ওয়ালেট খুলে তিনি দেখতে লাগলেন তাঁর সব জিনিস আছে কি না। তা করতে গিয়েও অবাক হলেন হান্টার। হারিয়ে যাওয়ার সময় তাঁর ওয়ালেটে ছিল ৬০ ডলার। ফিরে পাওয়া ওয়ালেটে আছে ১০০ ডলার। সঙ্গে একটি শুভেচ্ছা বার্তা।

ওয়ালেট ফিরিয়ে দেওয়া অজ্ঞাত পরিচয় সেই দয়ালু ব্যক্তির পরিচয় জানতে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন হান্টারের মা জেনি শামাত। সেই পোস্টটিতে সহস্রাধিক লাইক ও কমেন্ট পড়েছে।


আরও পড়ুন: জি-২০তে কি ট্রাম্পের সঙ্গে কথা হবে মোদীর?

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, ওয়ালেট ফিরিয়ে দেওয়া সেই ব্যক্তির নাম টড ব্রাউন। তিনি ওমাহার বাসিন্দা। ওয়ালেট ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য টডকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন হান্টারের মা জেনি শামাত।

(সারাবিশ্বের সেরা সব খবরবাংলায় পড়তে চোখ রাখতে পড়ুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)

Advertisement