Advertisement
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

নিষেধাজ্ঞায় ফের ধাক্কা আদালতে

ছ’টি মুসলিম দেশ থেকে আমেরিকায় প্রবেশের ক্ষেত্রে ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা আরও শিথিল করার কথা বলল আদালত। রাতারাতি পরিধি বাড়ল ‘নিকট আত্মীয়েরও’।

ভবিতব্য কী? ছবি: রয়টার্স

ভবিতব্য কী? ছবি: রয়টার্স

ওয়াশিংটন
সংবাদ সংস্থা  শেষ আপডেট: ১৫ জুলাই ২০১৭ ০৩:৪৯
Share: Save:

প্রেসিডেন্ট চাইছেন এক, আর বার বার কোর্টে ধাক্কা খেয়ে বদলে যাচ্ছে তার আসল চেহারাটা। ছ’টি মুসলিম দেশ থেকে আমেরিকায় প্রবেশের ক্ষেত্রে ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা আরও শিথিল করার কথা বলল আদালত। রাতারাতি পরিধি বাড়ল ‘নিকট আত্মীয়েরও’।

ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান, সিরিয়া এবং ইয়েমেন থেকে আমেরিকায় ঢোকা নিষিদ্ধ করার ক্ষেত্রে গত মাসেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘সংশোধিত’ নিষেধাজ্ঞায় আংশিক সায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। যা হাতিয়ার করে মার্কিন বিদেশ দফতর নয়া ফরমান জারি করে বলেছিল, ছাড় দেওয়া হবে শুধু কাছের সম্পর্কের ক্ষেত্রেই। অর্থাৎ কর্মসূত্রে ওই ছ’টি দেশ থেকে যাঁরা আমেরিকায় রয়েছেন, তাঁদের শুধু নিকট আত্মীয়েরাই এ দেশে আসতে পারবেন।

‘নিকট আত্মীয়’ বলতে ট্রাম্প প্রশাসন বাবা-মা (শ্বশুর-শাশুড়িও), স্বামী-স্ত্রী, ছেলেমেয়ে, জামাই, পুত্রবধূ এবং ভাইবোনের (সৎভাই বোনও) কথাই উল্লেখ করেছিল। কিন্তু দাদু-ঠাকুরমা-দাদু-দিদা, নাতিনাতনি, কাকা-কাকিমা, ভাইপো-ভাইঝি কিংবা সম্পর্কিত ভাইবোনদের কেন ‘কাছের সম্পর্ক’ হিসেবে গ্রাহ্য করা হবে না, তা নিয়েই মামলা হয়েছিল হাওয়াই স্টেটের ফেডেরাল কোর্টে। বিচারক ডেরিক ওয়াটসন গত কাল এর রায় দিয়ে গিয়ে জানান, ‘‘দাদু-দিদা কিংবা ঠাকুরদা-ঠাকুরমা অবশ্যই ঘনিষ্ঠ আত্মীয়। তাই কাছের সম্পর্ককে মান্যতা দিতে গেলে আরও অনেককেই ভ্রমণে ছাড় দিতে হবে।’’ যার অর্থ, আদালতের রায়ে আবারও ব্যাকফুটে ট্রাম্প প্রশাসন। আর স্বাভাবিক ভাবেই বিষয়টিকে বড় জয় হিসেবে দেখছে বিরোধী শিবির।

আদালতের নয়া নির্দেশ ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে হোমল্যান্ড সিকিউরিটির কাছে। বলপূর্বক নিষেধাজ্ঞা আরোপের চেষ্টা যাতে না হয়, তা-ও দেখভালের নির্দেশ দিয়েছেন ফেডেরাল বিচারক।

যদিও হোয়াইট হাউস সূত্রের খবর, বার বার ধাক্কা খেয়েও দেশে অভিবাসী স্রোত রুখতে অনড় প্রেসিডেন্ট। তৈরি হচ্ছে মেক্সিকো সীমান্তে দেওয়াল তোলা নকশাও। কয়েক দিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল, ট্রাম্প নাকি ওখানে সৌরবিদ্যুৎ চালিত দেওয়ালের কথা ভাবছেন। আর তা যে নেহাত কথার কথা নয়, আজ তা নিজেই জানালেন প্রেসিডেন্ট। ও-পারে সতর্ক নজর রাখতে দেওয়াল স্বচ্ছ হতে পারে বলেও ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। দু’দেশের সীমান্ত প্রায় ২ হাজার মাইল। তবে ট্রাম্পের দাবি, এর মধ্যে ৭০০ থেকে ৯০০ মাইলে দেওয়াল তুললেই যথোচিত ‘শিক্ষা’ দেওয়া যাবে মেক্সিকোকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE