Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৯ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ইরানের তেল বন্ধে সাড়া, তাই কি দরাজ ট্রাম্প

ইরানের তেল কেনা নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের সঙ্গে বিস্তারিত কথা হয়েছে নয়াদিল্লির। সূত্রের খবর, তারাও ইরান থেকে তেল আমদানি বন্ধ করতে চলেছে

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০২:২৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
রাষ্ট্রপুঞ্জের বার্ষিক সাধারণ সভায় ভারতকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি এএফপি

রাষ্ট্রপুঞ্জের বার্ষিক সাধারণ সভায় ভারতকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি এএফপি

Popup Close

রাষ্ট্রপুঞ্জের বার্ষিক সাধারণ সভায় ভারতকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও নয়াদিল্লির কূটনৈতিক শিবিরের বক্তব্য, এই প্রশংসা বিনামূল্যে মেলেনি।সূত্রের খবর, মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে মান্যতা দিয়েই নভেম্বর থেকে ইরানের তেল কেনা বন্ধ করতে চলেছে ভারত। তাই এত দরাজ ট্রাম্প প্রশাসন।

ইরানের তেল কেনা নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের সঙ্গে বিস্তারিত কথা হয়েছে নয়াদিল্লির। সূত্রের খবর, তারাও ইরান থেকে তেল আমদানি বন্ধ করতে চলেছে। যদিও ইরানের সবচেয়ে বড় খদ্দের চিন কী করবে, স্পষ্ট নয়।

এ মাসের গোড়ায় আমেরিকার সঙ্গে টু-প্লাস-টু বৈঠকেই নয়াদিল্লি জানিয়ে দেয় যে, ইরান থেকে তেল আমদানি ধীরে ধীরে কমিয়ে আনার পথে হাঁটছে তারা। ওয়াশিংটন জানিয়েছিল, নভেম্বরের পরে ইরান থেকে তেল কিনলে আর্থিক নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে হবে সংশ্লিষ্ট দেশকে। ভারতের দুই বৃহৎ রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থা ইন্ডিয়ান অয়েল এবং ভারত পেট্রোলিয়ামের পক্ষ থেকে নভেম্বরের জন্য ইরানের কাছে নতুন করে তেল চাওয়া হয়নি। ম্যাঙ্গালোর রিফাইনারি অ্যান্ড পেট্রোকেমিক্যাল লিমিটে‌ডও আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে। এই সংস্থাগুলি ইরানের থেকে তেল আমদানির প্রশ্নে প্রথম তিনটি স্থানে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, এতেই বোঝা যায় যে বিকল্প শক্তির উৎস সন্ধান ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে দেশে।

Advertisement

রাষ্ট্রপুঞ্জের সভায় ইরানকে একহাত নিয়ে ট্রাম্প দাবি করেছেন, সে দেশের নেতারা নৈরাজ্য, হত্যা এবং ধ্বংসে বিশ্বাসী। মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে যারা ইরান থেকে তেল আমদানি বন্ধ করছে, সেই সব রাষ্ট্রের প্রতি তাঁর বার্তা, ‘‘বিদেশি অনুদানের প্রশ্নে আমেরিকা বিশ্বের সবচেয়ে বড় দাতা। যাদের আমরা ডলার এবং সুরক্ষা দিয়ে থাকি, তারা সর্বদা আমাদের হৃদয়ে বাস করে।’’

রাষ্ট্রপুঞ্জের সভায় দারিদ্র দূরীকরণ ও মুক্ত সমাজ গড়া প্রসঙ্গে ভারত তথা মোদীর সরকারের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন ট্রাম্প। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে সেই দিনই ওয়াশিংটনের প্রথম সারির সমীক্ষা সংস্থা ‘ইনস্টিটিউট ফর হেলথ ম্যাট্রিক্স অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশন’ তাদের রিপোর্টে মানবসম্পদের তালিকায় ১৯৫টি দেশের মধ্যে ভারতকে ১৫৮তম স্থানে রেখেছে! সমীক্ষা হয়েছে গড় আয়ু, শিক্ষাগত মান, স্বাস্থ্য ইত্যাদির নিরিখে।

আজই আবার ইরানে গিয়েছেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। আফগানিস্তান, চিন, রাশিয়া ও ইরানের নিরাপত্তা উপদেষ্টা বা প্রতিরক্ষা দফতরের প্রতিমন্ত্রীদের সঙ্গে সন্ত্রাসদমন নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement