×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৫ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

সেলফির নেশা! পাঁচ তলা সমান সেতু থেকে নীচে পড়েও বেঁচে গেলেন মহিলা

সংবাদ সংস্থা
০৭ এপ্রিল ২০১৭ ১৩:১৪
এই সেতু থেকেই নীচে পড়ে গিয়েছেন ওই মহিলা। ছবি: সংগৃহীত

এই সেতু থেকেই নীচে পড়ে গিয়েছেন ওই মহিলা। ছবি: সংগৃহীত

হরি যদি না চান, তবে মারবে কার সাধ্যি?

সেলফির নেশায় বুঁদ হয়ে মাটি থেকে ৬০ ফুট উঁচুতে উঠে পোজ দিচ্ছিলেন তিনি। কখন যে সেতুর একেবারে কিনারায় চলে এসেছেন খেয়ালও করেননি। আর এতেই ঘটল বিপদ। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রায় পাঁচ তলা বাড়ি সমান উঁচু থেকে নীচে পড়ে গেলেন এক মহিলা। আবার বরাত জোরে বেঁচেও গেলেন!

ঘটনাটি ঘটেছে ক্যালিফোর্নিয়ায়। সম্প্রতি সেক্র্যামেন্টো মেট্রোপলিটান এলাকার বাসিন্দা ওই মহিলা ক্যালিফোর্নিয়ার অবর্ন এলাকার ফরেস্টহিল ব্রিজে বেড়াতে গিয়েছিলেন বন্ধুদের সঙ্গে। ৭৩০ ফুট উঁচু এই ফরেস্টহিল সেতুটি আমেরিকার উচ্চতম সেতুগুলির মধ্যে অন্যতম। অন্য বন্ধুরা যখন ব্রিজের নীচে ঘুরে বেড়াচ্ছেন সেই সময় পল গনচরুক নামের এক বন্ধুর সঙ্গে ব্রিজের কিছুটা উপরে উঠে সেলফি তোলার চেষ্টা করছিলেন ওই মহিলা। পল পুলিশকে জানান, সেলফি তুলতে গিয়ে সেতুর বিপজ্জনক জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিলেন তাঁর বান্ধবী। সেই সময়ই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নীচে পড়ে যান।

Advertisement

আরও পড়ুন: গার্লফ্রেন্ড খুঁজে পাননি, বিরক্ত হয়ে রোবটকে বিয়ে করে নিলেন ইনি!

ক্যালিফোর্নিয়া কান্ট্রি পুলিশ সূত্রে খবর, উপর থেকে সেতুর নীচে থাকা নরম পাটাতনে পড়েন ওই মহিলা। ফলে প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তিনি। তবে তাঁর হাতে গভীর আঘাত লেগেছে। হাত ও পায়ের হাড়ও ভেঙে গিয়েছে। ঘটনার পরেই তাঁকে সটার রোজভিল মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, কিছু দিনের মধ্যেই তাঁর অস্ত্রোপচার করা হবে।

বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে নিজেদের ফেসবুক পেজে সম্পূর্ণ ঘটনা তুলে ধরেছিল ক্যালিফোর্নিয়া পুলিশ। সাধারণের উদ্দেশে সেখানে লেখা ছিল, ‘‘যে কেউ সেলফির জন্য নিজের জীবন দিতেই পারেন। কিন্তু সেই সেলফি দেখার জন্য তখন আর আপনি থাকবেন না।’’

Advertisement