• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ঢাকায় জেএমবি নেত্রী সহ চার ছাত্রী গ্রেফতার

jmb

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাতে অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির চার সদস্যাকে  গ্রেফতার করল র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন। চারজনই বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিক্যালের ছাত্রী। এঁদের মধ্যে আকলিমা রহমান, মৌ ও মেঘনা মানারাত বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসি বিভাগের ছাত্রী। আর এক ধৃত ঐশী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিক্ষানবিশ চিকিৎসক। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (৪)-এর সিপিসি১-এর অধিনায়ক মেজর সাইদ সংবাদ মাধ্যমকে জানান, গ্রেফতার হওয়া আকলিমা জেএমবি-র নারী বিভাগের উপদেষ্টা, অন্যরা তাঁর সহযোগী।

গত ২১ জুলাই জেএমবির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রধান মহম্মদ মাহমুদুল হাসানকে ধরে জেরার পর  দলের বেশ কয়েকজন মহিলা সদস্যের খবর মেলে। র‌্যাব কর্তা লুৎফুল কবির বলেন, “আকলিমা প্রায় দেড় বছর ধরে তথাকথিত ওই জিহাদী দলটির সঙ্গে জড়িত। কথিত ইসলামী খেলাফত প্রতিষ্ঠার জন্য দলকে বড় করা এবং সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার জন্য তিনি তহবিল সংগ্রহ করে মাহমুদুল হাসানকে পৌঁছে দিতেন।”

আকলিমা রহমান ২০১৩ সালে মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হন। এখন  পড়ছিলেন ফার্মাসি বিভাগের চতুর্থ বর্ষে। চিকিৎসক বাবা, মায়ের সন্তান ঐশী ২০১০ সালে ভিকারুননিসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন। চলতি বছর জানুয়ারিতে এমবিবিএস শেষ করে জুন মাসে ইন্টার্নশিপ শুরু করেন। মৌ ২০১৩ সালে ভর্তি হন মানারত ইউনিভার্সিটির ফার্মাসি বিভাগে। অপর আটক মেঘনা মানারাত বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী।

গত জুলাই মাসে সিরাজগঞ্জ এবং টাঙ্গাইল থেকে জেএমবির সাত নারী সদস্যকে গ্রেফতারের করা হয়েছিল। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছিল অস্ত্র, বিস্ফোরক তৈরির সরঞ্জাম এবং উগ্র মতবাদের বই। তারা জেএমবির আত্মঘাতী দলের সদস্য বলে সে সময় দাবি করেছিল পুলিশ ।

আরও পড়ুন- বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড: রক্তক্ষরণ থামেনি বাঙালির হৃদয়ে

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন