×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

আজ হাসিনার শপথ, বাদ ৩৬ পুরনো মন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা
ঢাকা০৭ জানুয়ারি ২০১৯ ০৫:২৮
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

রেওয়াজ ভেঙে সোমবার শপথের আগে রবিবারই বাংলাদেশের নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম প্রকাশ করে দিলেন শেখ হাসিনা। কে কোন দফতর পাচ্ছেন, জানানো হল সেটাও। আর তাতেই চমকের পর চমক। আগের মন্ত্রিসভার বাঘা বাঘা কয়েক জন-সহ ৩৬ জনকে এ বার বাদ দেওয়া হয়েছে। রবিবার অন্তত যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে সবাই আওয়ামি লিগের। শরিক ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল ও জাতীয় পার্টি (জেপি)-র ৩ নেতা যথাক্রমে রাশেদ খান মেনন, হাসানুল হক ইনু এবং আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে গত বার মন্ত্রিসভায় রাখা হলেও এ বার ৩ দলের কারও নাম ঘোষণা করা হয়নি। 

মন্ত্রিসভার যে ৪৬ জন সদস্যের নাম রবিবার ঘোষণা করা হয়েছে, তার মধ্যে পূর্ণমন্ত্রী ২৪ জন, প্রতিমন্ত্রী ১৯ জন এবং ৩ জন উপমন্ত্রী রয়েছেন। এঁদের ৩১ জনই নতুন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন, প্রতিরক্ষা, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনি মন্ত্রক এবং মহিলা ও শিশু উন্নয়ন দফতর নিজের হাতে রেখেছেন। বিদেশমন্ত্রী হচ্ছেন রাষ্ট্রপু়্ঞ্জে দীর্ঘদিন বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করা আবুল মোমেন। রাজনীতিতে নতুন আসা মোমেন সদ্যপ্রাক্তন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের সহোদর। অশীতিপর মুহিত রাজনীতি থেকে অবসরের কথা ঘোষণার পরে নতুন অর্থমন্ত্রী হচ্ছেন আ হ ম মোস্তাফা কামাল। আসাদুজ্জামান খান কামাল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের দায়িত্বে থাকছেন। আওয়ামি লিগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের হাতে থাকছে তাঁর পুরনো সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রক। নতুন তথ্যমন্ত্রী হচ্ছেন এত দিন দলীয় প্রচারের দায়িত্বে থাকা হাছান মাহমুদ। নতুন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক। খাদ্যমন্ত্রী সাধনচন্দ্র মজুমদার। প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী দীপু মণি শিক্ষা দফতরের দায়িত্ব পেয়েছেন। 

বাদ পড়া মন্ত্রীদের মধ্যে রয়েছেন তোফায়েল আহমেদ, আমির হোসেন আমু, মতিয়া চৌধুরী, মহম্মদ নাসিম, খন্দকার মোশারফ হোসেন, নুরুল ইসলাম, আবুল হাসান মাহমুদ আলি, আসাদুজ্জামান নুর, শাহজাহান খান, নারায়ণচন্দ্র চন্দ এবং তারানা হালিম। বিরোধী জাতীয় পার্টি গত বার মন্ত্রিসভায় থাকলেও এ বার তাদের কেউ মন্ত্রী হবে না বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছে। রেওয়াজ অনুযায়ী বিরোধী দলনেতা পূর্ণমন্ত্রীর পদমর্যাদা পান। কিন্তু বিরোধী দলনেতা হিসাবে হুসেইন মহম্মদ এরশাদ উপপ্রধানমন্ত্রীর পদমর্যাদা দাবি করেছেন। নতুন মন্ত্রিসভায় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি নন, এমন দু’জনকে টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রী ও এক জনকে প্রতিমন্ত্রী করা হয়েছে। মহিলা প্রতিনিধি রয়েছেন ৪ জন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁদের এক জন। 

Advertisement
Advertisement