শিল্প আর্জি জানাচ্ছে বহু দিন ধরেই। অবশেষে ধারের ভারে জেরবার টেলিকম সংস্থাগুলিকে স্বস্তি দিয়ে বুধবার স্পেকট্রামের দাম মেটানোর সময় বাড়ানোর প্রস্তাবে সায় দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। ফলে এখনকার ১০ বছরের বদলে তা বেড়ে হয়েছে ১৬ বছর। পাশাপাশি, সংস্থাগুলির হাতে স্পেকট্রাম রাখার সর্বোচ্চ সীমাও বেড়েছে। এখন কোনও সংস্থা একটি সার্কেলে ২৫ শতাংশের বেশি স্পেকট্রাম রাখতে পারে না। তা বাড়িয়ে ৩৫% পর্যন্ত করেছে মন্ত্রিসভা।

মন্ত্রিসভার দাবি, লগ্নি টানার লক্ষ্যে বিভিন্ন সংস্থা মিশে যাওয়ার সুযোগ বাড়িয়ে ক্ষেত্রটিকে আঁটোসাঁটো করতে এবং সহজে ব্যবসার সুযোগ করে দিতেই এই অনুমোদন। এই শিল্পের সংগঠন সিওএআইয়ের ডিজি রাজন ম্যাথুজ বলেন, এর জেরে সহজ হবে সংযুক্তি। বাড়বে নগদের জোগান। তবে এই সুবিধা স্বল্প মেয়াদি।

নিলামে স্পেকট্রাম কিনতে গিয়েই টেলি শিল্প ঋণে ডুবেছে বলে অভিযোগ। দাম মেটাতে বাড়তি সময় পেলে ওই বাবদ এখনও শোধ করতে না পারা দায় পুনর্গঠন করতে পারবে সংস্থাগুলি। এতে কেন্দ্রের ঘরে আরও ৭৪,৪৪৬.০১ কোটি টাকা বেশি ঢুকবে বলে আশা সরকারি সূত্রের।

সিলমোহর

• হাতে রাখা যাবে আগের তুলনায় বেশি স্পেকট্রাম

• তার দাম মেটানো যাবে দশের বদলে ১৬ বছরে

আশা

• আরও বেশি লগ্নির পথ খুলবে টেলিকম শিল্পে

• বিভিন্ন সংস্থার মিশে যেতে সুবিধা হবে

• আঁটোসাঁটো হবে টেলিকম ক্ষেত্র

• সহজ হবে ব্যবসা করা

• স্পেকট্রাম বাবদ বাড়তে পারে কেন্দ্রের আয়