Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪

ছোট বিমানে ভর করে শহর থেকে নয়া দৌড় স্পাইসজেটের

পূবের আকাশ দখলের যুদ্ধে নামল স্পাইসজেট। ইন্ডিগোর একচেটিয়া বাজারের ভাগ নিতে এ বার পূর্বাঞ্চলে উড়ান বাড়াচ্ছে সংস্থা। সস্তার বিমান পরিষেবার স্বর্গরাজ্য এই অঞ্চলে বাড়তি উড়ানের চাহিদাকে পাখির চোখ করেই ইন্ডিগোর বাজারে তারা থাবা বসাতে চায় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর।

নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে অজয় সিংহ। সোমবার।-নিজস্ব চিত্র

নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে অজয় সিংহ। সোমবার।-নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০২:৫১
Share: Save:

পূবের আকাশ দখলের যুদ্ধে নামল স্পাইসজেট।

ইন্ডিগোর একচেটিয়া বাজারের ভাগ নিতে এ বার পূর্বাঞ্চলে উড়ান বাড়াচ্ছে সংস্থা। সস্তার বিমান পরিষেবার স্বর্গরাজ্য এই অঞ্চলে বাড়তি উড়ানের চাহিদাকে পাখির চোখ করেই ইন্ডিগোর বাজারে তারা থাবা বসাতে চায় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর। হাতিয়ার ৭৮ আসনের ছোট বম্বার্ডিয়ার বিমান, এই প্রথম যা কলকাতা থেকে চালাবে সংস্থা। বাণিজ্য পরিকল্পনা জানাতে সোমবার কলকাতায় এসে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও দেখা করেন স্পাইসের সিএমডি অজয় সিংহ।

লক্ষ্যে এগোতে অক্টোবরেই কলকাতা থেকে শিলচর, আইজল ও গোরক্ষপুরে উড়ান চালু করবে স্পাইস। গুয়াহাটিতে দিনে পাঁচটির বদলে ছ’টি করে উড়ান চালাবে। কলকাতা থেকে ছোট আন্তর্জাতিক রুটের দিকেও নজর দিচ্ছে তারা। তাই নভেম্বরে কলকাতা থেকে ঢাকা ও চট্টগ্রামে উড়ান শুরু করবে তারা। এখন কলকাতা থেকে আন্তর্জাতিক রুট হিসেবে শুধু ব্যাঙ্ককে উড়ান চালাচ্ছে সংস্থা। ব্যাঙ্ককে দিনের দ্বিতীয় উড়ানও শুরু করছে স্পাইস। ছোট রুটের পাশাপাশি নভেম্বরে কলকাতা থেকে জয়পুর ও বিশাখাপত্তনমেও দূরপাল্লার উড়ান চালু করছে তারা।

শিলচর, আইজল, গোরক্ষপুর, ঢাকা, চট্টগ্রাম — সর্বত্রই ছোট বম্বার্ডিয়ার বিমান চালানো হবে বলে জানিয়েছে সস্তার এই বিমান পরিষেবা সংস্থা। এ জন্য দু’তিন মাসের মধ্যে কলকাতায় তিনটি বম্বার্ডিয়ার আনা হচ্ছে। এ শহর থেকে প্রতিদিন ছোট ছোট রুটে চলবে ওই তিনটি বিমান। আসলে কম খরচের পরিষেবা সংস্থা ইন্ডিগোর সঙ্গে পাল্লা দিতে ব্যবসা বাড়ানোর কৌশল হিসেবে দু’মুখো নীতি নিতে চাইছে স্পাইস।

এক দিকে তারা চালাবে ছোট বম্বার্ডিয়ার বিমান, অন্য দিকে তাদের হাতে রয়েছে বোয়িং ৭৩৭। বম্বার্ডিয়ার থাকলে তা বেশি করে ছোট ছোট রুটে চালানো যাবে বলে সংস্থার কর্তারা জানাচ্ছেন। তাতে এক দিকে জ্বালানি কম পুড়বে, আবার অন্য দিকে ছোট বিমানের আনুষঙ্গিক খরচও কম। ৭৮ আসনের বিমান ভর্তি করে যাত্রীও নিয়ে যাওয়া যাবে বলে আশা সংস্থার। অন্য দিকে তুলনায় দূরের রুটে বোয়িং ৭৩৭ চালানো হবে, যেমন এখন হচ্ছে।

এই মুহূর্তে কলকাতা থেকে দিনে ১৫টি উড়ান চালায় স্পাইস। সেটা নভেম্বরের মধ্যে বেড়ে ২১টি হবে। অন্য দিকে এয়ার ইন্ডিয়া ও জেট এয়ারওয়েজ কলকাতা থেকে এখন দিনে গড়ে ২৫টি করে উড়ান চালায়। ইন্ডিগো চালায় দিনে ৭৪টি। এ হেন ইন্ডিগোর সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে গেলে ছোট ছোট রুটে যে আরও বেশি করে উড়ান চালাতে হবে, সে কথা বুঝেছেন সংস্থার কর্তারা। ছোট রুটের পাশাপাশি সাধারণ ভাবে উড়ান বাড়াতে নভেম্বরে কলকাতা থেকে জয়পুর ও বিশাখাপত্তনমেও বিমান চালাবে তারা।

সোমবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সামনে সাংবাদিক বৈঠকে অজয় সিংহ বলেন, ‘‘কলকাতা থেকে ব্যাঙ্ককে দ্বিতীয় উড়ান এবং শারজা বা দুবাইয়েও উড়ান চালাতে চাই।’’ এ শহর থেকে সরাসরি ইউরোপের উড়ান চালানোর দাবি অনেক দিনের। মমতাও তাঁকে এই রুটে বিমান চালানো শুরু করার জন্য অনুরোধ করেন। প্রসঙ্গত উঠে আসে বাগডোগরা, দুগার্পুর, কোচবিহার, মালদহ ও বালুরঘাট বিমানবন্দরের কথাও। সন্ধ্যায় কলকাতা-বাগডোগরা রুটে একটি করে উড়ান চালানোর জন্যও অনুরোধ করেছেন মমতা। মমতা বলেন, ‘‘আগামী ৪ অক্টোবর আইজল, শিলচরে উড়ান চালু হচ্ছে। এটা পুজোর আগেই কলকাতার জন্য সুখবর।’’

অজয় সিংহ বলেন, ‘‘বর্তমান মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে শিল্প বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে। আমরা এই শহর থেকে আগামী দিনে আরও উড়ান বাড়াতে চাই।’’ জানা গিয়েছে, সেই লক্ষ্যেই এই প্রথম তাঁরা কলকাতায় ছোট বম্বার্ডিয়ার বিমান নিয়ে আসছেন। এত দিন ১৭০ আসনের বোয়িং ৭৩৭ বিমান চলত কলকাতা থেকে।

অজয় সিংহের কথায়, ‘‘আঞ্চলিক রুটে উড়ান চালানোর ক্ষেত্রে তুলনায় ছোট বিমান অনেক বেশি উপযোগী। আমাদের হাতে এই মুহূর্তে ২৬টি বড় বোয়িং ৭৩৭ (১৭০ আসন) ছাড়াও ১৪টি বম্বার্ডিয়ার আছে। আরও তিনটি বম্বার্ডিয়ার যোগ হচ্ছে।’’ সংস্থার একটি সূত্র জানাচ্ছে, কলকাতা থেকে গড়ে ৯০ শতাংশ যাত্রী পাচ্ছেন তাঁরা। এ শহর থেকে উড়ান বাড়ানোর সেটাও একটা বড় কারণ।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে যখন মনে করা হয়েছিল কিংগ্‌ফিশারের মতোই তল্পিতল্পা গোটাতে চলেছে স্পাইস, তখনই সংস্থাটির দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন তার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা অজয় সিংহ। গত দু’বছরে ১৮০০ কোটি টাকার দেনা মিটিয়ে তিনি আবার চাঙ্গা করেছেন বিমান সংস্থাকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE