তিরন্দাজিতে বাংলার সাফল্য সত্ত্বেও সে ভাবে যে পরিকাঠামো তৈরি হয়নি মানছে ক্রীড়া মহল। 

যেটুকু আছে‌, তা সেই পুরনো। এ বার পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের অধীন কলকাতা মেট্রোপলিটন ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (কেএমডিএ) এগিয়ে এল সেই কাজে।

রবীন্দ্র সরোবরের দক্ষিণ দিকে লেক গার্ডেন্স স্টেশনের নীচে প্রায় ২৪ কাঠা জায়গা জুড়ে তৈরি হচ্ছে একটি তিরন্দাজি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। কেএমডিএ-র এক আধিকারিক বলেন, ‘‘এই মুহূর্তে দক্ষিণ কলকাতায় একটিও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নেই বলেই জানি। আগে দু’-একটি ছিল। অনেক বছর আগে তা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এটি তৈরি হলে, দক্ষিণ কলকাতার তিরন্দাজিতে উৎসাহী মানুষের উপকার হবে।’’ এত দিন দক্ষিণ কলকাতা থেকে উৎসাহীদের প্রশিক্ষণ নিতে আসতে হত সল্টলেকের সাই-এ অথবা উত্তরের বরাহনগর বা সিঁথির  মোড়ের দিকে। 

কেএমডিএ সূত্রের খবর, প্রশিক্ষণের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ‘দোলা অ্যান্ড রাহুল ব্যানার্জি স্পোর্টস ফাউন্ডেশন’কে। এখানে এগারো বছর বয়স থেকে প্রশিক্ষণ নেওয়া যাবে। সংস্থার তরফ থেকে দোলা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘প্রথম ধাপে সপ্তাহে ছ’দিন বিকেলে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। পরবর্তী পর্যায়ে উৎসাহ বুঝে প্রশিক্ষণের সময় বাড়ানো হবে।’’ তবে কেউ যদি শখে তিরন্দাজি শিখতে চান, সেই ব্যবস্থাও থাকবে এখানে। 

সংস্থা সূত্রের খবর, ছ’টি টার্গেট এক সঙ্গে রাখা হবে। শুরুতে ২৫-৩০ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। কম্পাউন্ড বো, রিকার্ভ বো এবং বাম্বু বো ব্যবহার করে প্রশিক্ষণ হবে। প্রথমে বাম্বু বো (বাঁশের ধনুক) দিয়ে শিক্ষানবিশদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। 

সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, প্রশিক্ষণ এবং শারীরচর্চার পাশাপাশি, ইনজুরি ম্যানেজমেন্ট, পেশি এবং মানসিক উন্নতির দিকটিও নজর দেওয়া হবে। ছোটদের মানসিক গঠন এবং মনঃসংযোগ মজবুত করতে এ ধরনের প্রশিক্ষণ খুবই ফলপ্রসূ হবে বলে মনে করেন ক্রীড়াবিদেরা।