নিউ টাউনে আইনজীবী রজত দে-র মৃত্যুর ঘটনায় তাঁর স্ত্রী অনিন্দিতা পাল দে-কে ফের জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিল বারাসত আদালত। শুক্রবার ওই মামলার শুনানি ছিল। অনিন্দিতাকে অবশ্য এ দিন আদালতে হাজির করা হয়নি। ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে শুনানি চলে।

অভিযুক্তের আইনজীবী চন্দ্রশেখর বাগ জামিনের আবেদন জানিয়ে বলেন, তাঁর মক্কেল গত ৪২ দিন জেল হেফাজতে রয়েছেন। কিন্তু এ দিন কেন পুলিশ ফের জেল হেফাজত চাইছে, তার কারণ জানায়নি।

জামিনের বিরোধিতা করে সরকারি আইনজীবী বিভাস চট্টোপাধ্যায় জানান, ময়না-তদন্ত ও ফরেন্সিক পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী জীবিত অবস্থায় আঘাত লেগেছে রজতের। তাঁর শ্বাসরোধও করা হয়েছিল। ফলে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নির্দিষ্ট সূত্র পাওয়া গিয়েছে। তিনি জানান, রজতের বাবা, বাড়ির পরিচারিকা ও কেয়ারটেকার গোপন জবানবন্দি দিয়েছেন। এই অবস্থায় অভিযুক্তকে জামিন দিলে তিনি সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে পারেন, তথ্যপ্রমাণও নষ্ট করতে পারেন। উভয় পক্ষের সওয়াল শুনে অনিন্দিতার ১৪ দিনের জেল হেফাজত দেয় আদালত।

বিভাসবাবু এ দিন আদালতে জানান, ওই ঘটনায় অনিন্দিতার মা, বাবা ও ভাইয়ের বিরুদ্ধেও অভিযোগ আনা হয়েছে। সেই পরিবেশে রজত-অনিন্দিতার সন্তানকে না রেখে নিজের কাছে রাখতে চেয়ে আদালতে আর্জি জানিয়েছেন রজতের বাবা সমীর দে।