পুলিশের কাছে ছিনতাইয়ের ভুয়ো অভিযোগ করে ফেঁসে গেলেন এক তরুণী। ভুয়ো অভিযোগ করায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দিল আদালত। ওই তরুণীর বিরুদ্ধে শুক্রবার রিপোর্ট কোর্টে জমা দিয়েছে গরফা থানা। তার ভিত্তিতেই আলিপুর আদালত এই
রায় দেয়।

পুলিশ জেনেছে, ওই তরুণী অনলাইনে এক বহুজাতিক প্রসাধনী সংস্থার হয়ে ব্যবসা করতেন। পুলিশের দাবি, ব্যবসায় ক্ষতির মুখে পড়েই ছিনতাইয়ের গল্প ফেঁদেছিলেন অভিযোগকারিণী। গরফা থানা এলাকার বাসিন্দা, বছর বত্রিশের ওই তরুণী ২৩ অগস্ট অভিযোগ করেন যে, ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তুলে ফেরার সময়ে গরফা ব্রিজের কাছে মোটরবাইকে করে এসে দুই দুষ্কৃতী প্রায় ৭৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। কিন্তু তদন্তে পুলিশ জানতে পারে যে, ঘটনার দিন ব্যাঙ্ক থেকে মাত্র ১১ হাজার টাকা তুলেছিলেন তিনি। এর পরে ব্যাঙ্ক থেকে বেরিয়ে পাশের এটিএমে গিয়ে সেই টাকা জমাও দেন। পরে ৭৫ হাজার টাকা ছিনতাই হয়েছে বলে অভিযোগ দায়ের করেন।

তদন্তকারীরা জানান, তরুণীর কথায় অসঙ্গতি রয়েছে বুঝে ব্যাঙ্কে খোঁজ নিতে গিয়েই আসল ঘটনা সামনে আসে। পুলিশের দাবি, তরুণী পরে মিথ্যে অভিযোগের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, ব্যবসায় ক্ষতির কথা পরিবারকে জানাতে পারেননি। তাই ভুয়ো ছিনতাইয়ের গল্প ফেঁদেছিলেন।