• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভাগাভাগির শহরে ‘যুদ্ধে’ গড়াল ২২ গজের উত্তেজনা

এক ভাগ বেঙ্গালুরু। অন্য ভাগ হায়দরাবাদ। শহরের নাম কলকাতা।

রবিবার রাতে আইপিএল ফাইনালের হাত ধরে এ ভাবেই ভাগাভাগি হয়ে গেল মহানগরী।

শহরের নিজের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে গিয়েছিল গত ২৫ মে, প্লে অফ পর্বেই। ক্রিকেটপ্রেমী কলকাতাবাসীর গলা ফাটানোয় খানিকটা ভাটা পড়েছিল বটেই। কিন্তু ফাইনাল আসতেই ফের জেগে উঠল শহর। তবে শহরের ভৌগোলিক সীমা পেরিয়ে নিছক আনন্দে মাতোয়ারা হতে গিয়ে ঘটে গেল আইন ভাঙার ঘটনাও।

পুলিশ জানায়, বেঙ্গালুরুর বিরাট কোহলি-র রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু বনাম ডেভিড ওয়ার্নারের সানরাইজার্স হায়দরাবাদের খেলা ঘিরে শহরের অন্যান্য প্রান্তের মতোই তুমুল উদ্দীপনা ছিল দু’ভাগ হয়ে যাওয়া মেটিয়াবুরুজেও। ২০৮ রান তাড়া করে বিরাট ও গেইল জয়ের কাছে পৌঁছে দিলেও শেষরক্ষা হয়নি। খেলার শেষে ২২ গজের সেই জেতা-হারাকেই ‘সম্মুখ সমরে’ নিয়ে গেলেন প্রায় দু’হাজার কিলোমিটার দূরের শহরের দু’দল সমর্থক।

পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার রাত সওয়া ১২টা নাগাদ মেটিয়াবুরুজ থানার মজিব তালাব মোড়ে ওই বচসা শুরু হয়। তা গড়ায় হাতাহাতি-মারামারিতে। অভিযোগ, দু’দলের প্রায় একশো যুবক প্রকাশ্য রাস্তায় কাচের বোতল, লোহার রড, ব্যাট নিয়ে একে-অপরের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়েন। যদিও পুলিশ আসছে শুনেই পিঠটান দেয় দু’দলই। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছলে স্থানীয় বাসিন্দারা কয়েক জনের নামে পুলিশের কাছে এলাকায় অশান্তি ছড়ানোর অভিযোগ করেন। তার ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে কলকাতা পুলিশ।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন