• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ওয়াটগঞ্জে এটিএম ভেঙে লুঠের চেষ্টা, অ্যালার্ম বাজতেই চম্পট

ATM
মেশিনের সামনে প্লাস জাতীয় যন্ত্র পড়ে রয়েছে। পিছন দিকে পড়ে রয়েছে শাবল জাতীয় লোহার রড। —নিজস্ব চিত্র।

শহরের মধ্যেই এটিএম ভেঙে লুঠের চেষ্টা। শুক্রবার গভীর রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ওয়াটগঞ্জ থানা এলাকার একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের এটিএমে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ডায়মন্ড হারবার রোডে সেন্ট থমাস স্কুলের পাশের এটিএম থেকে শুক্রবার গভীর রাতে অ্যালার্মের আওয়াজ শুরু হয়। সাধারণত কোনও এটিএম জোর করে বন্ধ করার চেষ্টা হলে বা এটিএমের কোনও যন্ত্র ভাঙার চেষ্টা হলে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে ওই অ্যালার্ম বেজে ওঠে। অ্যালার্ম বেজে ওঠার কয়েক মিনিটের মধ্যেই টহলদারি পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। সেখানে রক্ষীবিহীন ওই এটিএমে ঢুকে দেখা যায়, মেশিনের সামনে একটা প্লাস জাতীয় যন্ত্র পড়ে রয়েছে। এটিএমের পিছন দিকে পড়ে রয়েছে একটা শাবল জাতীয় লোহার রড।

এর পরই ঘটনার তদন্ত শুরু করে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের ব্যাঙ্ক জালিয়াতি দমন শাখা এবং ওয়াটগঞ্জ থানার আধিকারিকরা। এটিএমের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ থেকে দেখা যায়, চার জন দুষ্কৃতী এটিএমে ঢুকেছিল। তদন্তকারীদের ধারণা, প্লাস দিয়ে সিসি অ্যালার্মের তার কাটতে গিয়েই বিপত্তি হয়। অ্যালার্ম বেজে ওঠে। ভয় পেয়ে যন্ত্রপাতি ফেলেই গা ঢাকা দেয় দুষ্কৃতীরা। প্রাথমিক তদন্তের পর তদন্তকারীদের ধারণা, এটিএমের ক্যাশ কম্পার্টমেন্ট বা টাকা রাখার জায়গাটির ঢাকনা শাবল দিয়ে খোলার চেষ্টা করে দুষ্কৃতীরা। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে গোয়েন্দাদের অনুমান গ্যাস কাটার জাতীয় যন্ত্রও ছিল দুষ্কৃতীদের কাছে। তবে গোয়েন্দারা এখনও নিশ্চিত নন, দুষ্কৃতীরা স্থানীয় না ভিন্‌রাজ্যের।

আরও পড়ুন: বেড খালি নেই, ফিরিয়ে দিল একাধিক হাসপাতাল, ১১ ঘণ্টা চিকিৎসাহীন থেকে মৃত কিশোর​

আরও পড়ুন: ​করোনা নিয়েই জন্মাল শিশু, দেশে এই প্রথম!​

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন