নদিয়ার তাহেরপুরের পর এ বার খাস শহরের বুকে কাশ্মীরি শালওয়ালার উপর হামলা চালাল দুষ্কৃতীরা। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে পার্ক সার্কাসে।

পুলিশ জানিয়েছে, আক্রান্ত ওই শালওয়ালার নাম সফুর আহমেদ শাহ। থাকেন সন্তোষপুরে। ওই দিন সন্ধ্যায় তিনি পার্ক সার্কাসে এক মহাজনের কাছে টাকা দিতে যাচ্ছিলেন। তাঁর ব্যাগে ১ লক্ষ ৯৫ হাজার টাকা ছিল।  অভিযোগ, রেললাইনের ধার ধরে যাওয়ার সময় একটা নির্জন জায়গায় হঠাত্ই কয়েক জন তাঁকে ঘিরে ধরে। কোথা থেকে আসছেন, কী করেন— সফুরকে এ সব প্রশ্ন করতে থাকে তারা। তাদের সব কিছুই জানান সফুর। হঠাত্ই টাকার ব্যাগটা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে দুষ্কৃতীরা। সফুর বাধা দিতে গেলে বেধড়ক মারধর করা হয়। শরীরের বেশ কয়েক জায়গায় ছুরি দিয়েও আঘাত করা হয় বলে অভিযোগ। সফুর মাটিতে পড়ে গেলে তাঁর কাছে থেকে টাকার ব্যাগটা নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা।

লাইনের ধারে সফুরকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। তাঁরাই উদ্ধার করে ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকিত্সকরা জানান, পেটে ও পায়ে আঘাত লেগেছে সফুরের। তবে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে সার্ভে পার্ক থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন সফুর। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

সফুরের পায়ে ছুরি দিয়ে কোপায় দুষ্কৃতীরা। নিজস্ব চিত্র।

আরও পড়ুন: সব বুথ স্পর্শকাতর করা হোক, বিরোধীদের এই দাবিকে ‘ছলচাতুরি’ বললেন পার্থ

আরও পড়ুন: দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

পুলওয়ামা কাণ্ডের পর থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কাশ্মীরিদের উপর হামলার ঘটনা ঘটছে। বাদ পড়েনি এ রাজ্যও। গত ফেব্রুয়ারিতে নদিয়ার তাহেরপুরে জাভেদ আহমেদ খান নামে এক কাশ্মীরি শালওয়ালাকে বেধড়ক মারধর করা হয়। সেই ঘটনায় পরে মোট পাঁচ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।