• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার নালিশ, ধৃত স্বামী

Tanushree Sardar
তনুশ্রী সর্দার

স্বামীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। মৃতের নাম তনুশ্রী সর্দার (২১)। বাসন্তী থানার চুনাখালি পঞ্চায়েতের পূর্ব বয়ারসিংহ গ্রামের ঘটনা। তাঁর বাবা তাপস সর্দারের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত স্বামী দুধকুমার সর্দার ও শ্বশুর সন্ন্যাসীকে গ্রেফতার করেছে বাসন্তী থানার পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, বছর তিনেক আগে দুধকুমারের সঙ্গে বাসন্তীর পালবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা তনুশ্রীর বিয়ে হয়। তাঁদের বছর দেড়েকের পুত্রসন্তান আছে। নার্সিংহোমের কর্মী দুধকুমার। বিয়ের পরে বছর দু’য়েক স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভাল সম্পর্ক ছিল। কিন্তু অভিযোগ, বছরখানেক ধরে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে দুধকুমার।

ঘটনা জানতে পারেন তনুশ্রী। স্বামীর সঙ্গে অশান্তি শুরু হয়। সন্তানকে নিয়ে বেশ কয়েকবার বাপের বাড়িতে চলে যান ওই তরুণী। স্বামী কয়েকবার ফিরিয়েও এনেছিল।

৭ জুলাই তনুশ্রীর মা রানু নিজে জামাই বাড়িতে গিয়ে তাকে বুঝিয়ে আসেন। কিন্তু তারপরেও মেটেনি সমস্যা। ৯ জুলাই বাপের বাড়ির দিকে রওনা দেন তনুশ্রী। তাঁকে রাস্তা থেকে বাড়িতে ধরে নিয়ে গিয়ে গায়ে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ তনুশ্রীর পরিবারের। স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁকে উদ্ধার করেন।

কলকাতার চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তনুশ্রীকে। সেখানে দু’দিন চিকিৎসার পরে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। দিন দু’য়েক ক্যানিং হাসপাতালে চিকিৎসার পরে অবস্থার অবনতি হলে রোগীকে অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন চিকিৎসকেরা।

বাসন্তীর একটি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে মঙ্গলবার মৃত্যু হয় তনুশ্রীর। মেয়ের মৃত্যুর পরে তাপস মঙ্গলবার রাতে বাসন্তী থানায় জামাই ও শ্বশুরবাড়ির বাকি সদস্যদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। দু’জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। দেহ পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন