চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রতারণার অভিযোগে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সম্পাদককে গ্রেফতার করল পুলিশ। 

হাড়োয়ার জঙ্গলআটি গ্রামের বাসিন্দা ওই যুবকের নাম জাকির হোসেন মোল্লা। বৃহস্পতিবার তাকে বসিরহাটের অনন্তপুর গ্রামের বাসিন্দারা আটকে রেখে খবর দেন পুলিশকে। পুলিশ গিয়ে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ আছে। ধৃতকে বসিরহাটের এসিজেএমের আদালতে তোলা হলে বিচারক পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, জঙ্গলআটির বাসিন্দা জাকির কয়েক বছর আগে সন্দেশখালির ধামাধালিতে প্রতিবন্ধীদের সাহায্যের জন্য একটি সংস্থা করে। পরবর্তিতে ওই সংস্থার শাখা করা হয় বসিরহাটের মাটনিয়া-অনন্তপুর গ্রামে। প্রতিবন্ধীদের স্কুল করে সেখানে চাকরি দেওয়া হবে বলে অনেকের থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা তোলে বলে অভিযোগ ওঠে জাকিরের বিরুদ্ধে। এক তরুণীর অভিযোগ, চাকরির নাম করে হাজার হাজার টাকা নিয়ে প্রতারণা করেছে জাকির। তাঁর শ্লীলতাহানিও করেছে। ঘটনা জানিয়ে ওই তরুণী বসিরহাট থানায় অভিযোগ করেন। সংস্থার সদস্য রক্তিম ইসলাম, চৈতালি মণ্ডলরা বলেন, ‘‘স্কুলে চাকরি দেওয়ার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে আমাদের মতো বেশ কয়েক জনের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়েছে জাকির। টাকা ফেরত চাইতে গেল কয়েকজন মহিলার শ্লীলতহানিও করা হয়েছে। সরকারের দেওয়া প্রতিবন্ধীদের সরঞ্জাম বিক্রি পর্যন্ত করেছে।’’ তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করে জাকির বলে, ‘‘আসলে প্রতিষ্ঠান বড় হচ্ছে দেখে কেউ কেউ ঈর্ষায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছে।’’