• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দুষ্কৃতীকে ধরায় বোমা ব্যান্ডেলে

Arrested
প্রতীকী ছবি।

এক দুষ্কৃতীকে পুলিশ গ্রেফতার করার কিছুক্ষণের মধ্যে বোমাবাজির ঘটনায় রবিবার রাতে আতঙ্ক ছড়াল ব্যান্ডেল স্টেশন রোড এলাকায়। ধৃতের দলবলই ওই কাণ্ড করে বলে পুলিশের অনুমান। তবে, বোমাবাজিতে কেউ হতাহত হননি।

ব্যান্ডেলে কয়েক মাস ধরে দুষ্কৃতী-দৌরাত্ম্য বেড়েই চলেছে। বোমাবাজি, খুন— কিছুই  বাদ নেই। রবিবার রাতে দেবানন্দপুর এলাকার হলুদপুলের কাছ থেকে সঞ্জয় পাসোয়ান ওরফে লালা নামে ওই দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, তোলাবাজি-সহ নানা অভিযোগ রয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের কাছ থেকে ২৫ কেজি গাঁজা মিলেছে। সে ওই গাঁজা পাচার করতে মোটরবাইকে যাচ্ছিল। দীর্ঘদিন ধরে তাকে খোঁজা হচ্ছিল। মোটরবাইকটি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

লালা বালিকাটা এলাকার বাসিন্দা। এই বালিকাটাতেই চলতি মাসের গোড়ায় দু’দল দুষ্কৃতীর গুলি-বোমার লড়াই হয়েছিল। সেই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মানসপুর এলাকার এক যুবককে পরে গুলি করে খুন করে দুষ্কৃতীরা। সেই ঘটনায় জড়িত অভিযোগে পুলিশ তারাপীঠ থেকে আট জনকে গ্রেফতার করে। সকলেই বালিকাটার বাসিন্দা। ওই এলাকায় দুষ্কৃতী তাণ্ডবের প্রতিবাদে কিছুদিন আগেই বাসিন্দারা ব্যান্ডেল পুলিশ ফাঁড়িতে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন। ভাঙচুরও চালানো হয়। এলাকা দুষ্কৃতীমুক্ত করার দাবিও ওঠে।

তার পর থেকেই পুলিশের টহলদারি বাড়ে ওই এলাকায়। লালা গ্রেফতার এবং বোমাবাজির ঘটনায় ফের আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। রবিবার রাতে যেখানে বোমাবাজি হয়, তার কাছেই ফাঁড়ি। পুলিশের অনুমান, লালাকে গ্রেফতারের প্রতিবাদেই বোমাবাজি করে তার অনুচররা। ওই এলাকায় টহলদারি জারি থাকবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন