বিগত বিধানসভা নির্বাচনে বলার  কোনও পরিস্থিতিতেই ছিল না বিজেপি। এই পাঁচ বছরে অনেকটাই শক্তি বাড়িয়েছে তারা। ইসলামপুর এলাকার বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, এই মুহূর্তে জিতে আসার মতো ক্ষমতা তৈরি হয়েছে তাঁদের। এমনই আত্মবিশ্বাস নিয়ে আজ, বৃহস্পতিবার এখানে প্রচারে আসছেন দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আগামিকাল ইসলামপুরের কালনাগিনী এলাকায় আসার কথা দলের বিদায়ী সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র। 

২০১৬ সালে ইসলামপুর আসনে বিজেপি প্রার্থী হয়েছিলেন দলের ইসলামপুর শহর সভাপতি সৌম্যরূপ মণ্ডল। ১৮ হাজারের কিছু বেশি ভোট পেয়েছিলেন তিনি। সেবার অবশ্য তাঁর মূল প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন সদ্যবিদায়ী বিধায়ক তথা ইসলামপুর পুরসভার চেয়ারম্যান কানাইয়ালাল আগরওয়াল ও প্রাক্তন মন্ত্রী আব্দুল করিম চৌধুরী। কানাইয়ালাল আগরওয়াল  তৃণমূলের লোকসভার প্রার্থী হয়েছিলেন। শাসক দল অবশ্য প্রার্থী করে দল ছেড়ে যাওয়া করিমকেই। কানাইয়া-করিম এখন একজোট হয়েছেন। এটা বিজেপির কাছে বড় চ্যালেঞ্জ এ আসনটি দখল করার  ক্ষেত্রে। দাড়িভিট ইস্যু, ইসলামপুরে ধর্মঘটের দিন দোকানের উপর হামলাকে মূল হাতিয়ার করে লড়াই করছে বিজেপি।  শুধু তাই নয়, এলাকায় দ্বিতীয় কোনও কলেজ না থাকা, এলাকায় নদীর উপর সেতু না থাকায় যাতায়াতের সমস্যা, কর্মসংস্থানের সমস্যাগুলোও তুলে ধরছে বিজেপি। 

আজ প্রার্থীর প্রচারে রোড শো আয়োজন করার কথা বিজেপির। স্টেট ফার্ম কলোনি মাঠ থেকে সেই রোড শো শুরু হওয়ার কথা। সেখানে উপস্থিত থাকবেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। যদিও রোড শোয়ের অনুমোদন পাওয়া গেলেও হেলিপ্যাড ব্যবহারের কোনও অনুমোদন এখনও পর্যন্ত মেলেনি। বিজেপির উত্তর দিনাজপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক  সুরজিৎ সেন বলেন, ‘‘রোড শোয়ের অনুমোদন পাওয়া গেলেও এখনও পর্যন্ত  হেলিপ্যাডের অনুমোদন পাওয়া যায়নি। দেখছি কী পরিস্থিতি তৈরি হয়।’’ তবে বাবুল সুপ্রিয় শুক্রবার কিসানগঞ্জ থেকে হেলিকপ্টারে নেমে কালনাগিন এলাকায় প্রচারে যাবেন বলে জানিয়েছেন বিজেপি  নেতারা।

লোকসভা নির্বাচনের আগে দিলীপের সভা ঘিরে বিতর্ক ছড়ায়। দাড়িভিট সংলগ্ন গঙ্গা মেলা মাঠে দিলীপের সভা থাকলেও সেবার অনুমোদন দিয়ে পরে বাতিল করে দেওয়া  হয়েছিল।