• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফোঁটা সেরে ফেরার পথে মৃত দুই যুবক

Accident
প্রতীকী ছবি।

ভাইফোঁটা উপলক্ষে পিসির বাড়ি থেকে মোটরবাইকে ফেরার পথে ট্রাকের ধাক্কায় মৃত্যু হল কিশোর ও তার বন্ধুর। গুরুতর আহত হয়ে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন পিসতুতো ভাইও। সোমবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে রানিগঞ্জ থেকে মোরগ্রাম যাওয়ার জাতীয় সড়কের মহম্মদবাজার থানার সোঁতসাল মোড় ও কালীতলা মোড়ের মধ্যবর্তী জায়গায়। 

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত দুই কিশোরের নাম কালী বাগদি (১৭) ও সুরজ বাগদি (২৩)। বাবন বাগদি চিকিৎসাধীন। কালী ও সুরজের বাড়ি ডেউচার বাগদিপাড়ায়। বাবনের বাড়ি গণপুর পঞ্চায়েতের গোপালনগর গ্রামে। পরিবার সূত্রে জানা যায়, রাত ন'টা নাগাদ ডেউচা থেকে কালী তাঁর বন্ধু সুরজকে সঙ্গে নিয়ে ভাইফোঁটা উপলক্ষে রাতে গোপালনগর গ্রামে পিসির বাড়িতে যায়। সেখানে খাওয়ার পরে পিসির ছেলে বাবনকে সঙ্গে নিয়ে মোটরসাইকেলে তিন জনে রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ বাড়ি ফিরছিল। সেই সময়েই সোঁতসালের কাছে ট্রাকের সঙ্গে মোটর সাইকেলের ধাক্কায় এই দুর্ঘটনা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দুর্ঘটনার পরেই বাসস্ট্যান্ডে থাকা সিভিক ভলান্টিয়াররা মহম্মদবাজার থানায় জানান। আটক করা হয় ট্রাক চালককে। অ্যাম্বুল্যান্সে সিউড়ি সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই মৃত্যু হয় কালীর। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সুরজ ও বাপনকে স্থানান্তরিত করা হয় বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে। পথেই মৃত্যু হয় সুরজের। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন বাবন। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমেছে তিন পরিবারেই। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন