আজ গণপুরে শাহ, বৃষ্টির মধ্যেই প্রস্তুতি
বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রের কনভেনার শুভ্রাংশু চৌধুরীর দাবি, শুধু বিজেপি কর্মী নয়, এলাকার অনেক মানুষ হাতে হাত লাগিয়ে এগিয়ে দিচ্ছেন প্রস্তুতি।
BJP

বাঁধা হচ্ছে মঞ্চ। নিজস্ব চিত্র

আজ অমিত শাহ, পরশু বুধবার নরেন্দ্র মোদী। বীরভূমের মাটিতে বিজেপির প্রধান দুই মুখের সভার প্রস্তুতি নিয়ে তৎপরতার অন্ত নেই দল এবং প্রশাসনের। আজ, সোমবার দুপুর ১২টায় মহম্মদবাজারের গণপুরে শুরু হওয়ার কথা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের জনসভা। হেলিপ্যাড তৈরি হয়ে গেলেও বিকেলেও শেষ হয়নি মঞ্চের কাজ। রবিবার ঝড়-বৃষ্টিকে সঙ্গে করেই তার প্রস্তুতি চলল পুরোদমে।

বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রের কনভেনার শুভ্রাংশু চৌধুরীর দাবি, শুধু বিজেপি কর্মী নয়, এলাকার অনেক মানুষ হাতে হাত লাগিয়ে এগিয়ে দিচ্ছেন প্রস্তুতি। রবিবার আচমকাই ঝড়, বৃষ্টি শুরু হওয়ায় ঘণ্টাখানেকের জন্য কাজ বন্ধ রাখতে হয়। ফলে অনেকটাই পিছিয়ে যায় মঞ্চের কাজ। এই সভাকে কেন্দ্র করে মহম্মদবাজারে শুরু হয়েছে উৎসবের মেজাজ। অনেকেই আগ্রহের সাথে অপেক্ষা করছেন সর্বভারতীয় সভাপতি কী বলেন, তার জন্য। সভাস্থলে সব সময় চলছে পুলিশি টহলদারি। পুরো মাঠ আগলে রেখেছে প্রশাসনও।

২৪ তারিখ ইলামবাজারে জনসভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জনসভার জন্য বোলপুর-ইলামবাজারের মাঝে কামারপাড়ার মাঠ ঠিক করা হয়েছে। সেই মাঠ এখন আগলে রাখছেন বিজেপি কর্মীরা। শনিবার থেকে শুরু হয়েছে মাঠ পাহারা। রবিবার ইলামবাজারের কামারপাড়া মাঠ পরিদর্শন করে যান এসপিজির একটি দল ও জেলা পুলিশ সুপার আভারু রবীন্দ্রনাথ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বোলপুর) তন্ময় সরকার সহ বিভিন্ন আধিকারিকরা। কোথায় মঞ্চ করা হবে, কোথায় দর্শক আসন থাকবে, মাঠের চারপাশ কী ভাবে ঘেরা হবে এই সমস্ত নিয়েই দীর্ঘ সময় আলোচনা করেন এসপিজি ও পুলিশ কর্তারা।

হেলিপ্যাডের জন্য বিশ্বভারতীর কুমিরডাঙার মাঠও পরিদর্শন করেন এসপিজি ও পুলিশ কর্তারা। সূত্রের খবর, অস্থায়ী হেলিপ্যাডের জন্য এখনও পর্যন্ত তিনটি মাঠ নির্বাচন করা হয়েছে। বিজেপির জেলা সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘হেলিপ্যাডের মাঠ নিয়ে কিছু জটিলতা দেখা দিয়েছিল। কিন্তু, তা মিটে গিয়েছে। বীরভূমের বুকে ঐতিহাসিক সভা অপেক্ষা করছে।’’

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত