Advertisement
Back to
Lok Sabha Election 2024

মোদীর সভা থেকে ফেরার পথে বিজেপি কর্মীদের বাস লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ার অভিযোগ, উত্তপ্ত বীরভূম

বিজেপির দাবি, মোদীর সভায় ভিড় দেখে ভয় পেয়ে তৃণমূলের গুন্ডাবাহিনী বিজেপি সমর্থকদের বাসে পাথর ছুড়েছে। পাল্টা, দায় অস্বীকার করে দোষীদের কঠোর শাস্তির আবেদন জানিয়েছে তৃণমূল।

File image of Suri hospital

বিজেপি সমর্থকদের বাসে ঢিল ছোড়ার অভিযোগ বীরভূমে। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
সিউড়ি শেষ আপডেট: ০৩ মে ২০২৪ ২২:০৬
Share: Save:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভা শুনে বাড়ি ফেরার পথে বিজেপি কর্মী বোঝাই বাসে পাথর ছোড়ার অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের সিউড়ির চাঁদমারি ময়দানের কাছে। পাথরের ঘায়ে আহত এক মহিলা-সহ দু’জন। তাঁদের সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

বীরভূমেরই মহম্মদবাজার ব্লকের কাপিষ্ঠা থেকে বাসে করে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা গিয়েছিলেন আমোদপুরে। সেখানে বক্তৃতা করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সভা শেষে কর্মী, সমর্থকদের বোঝাই করে এলাকা ছাড়ে একের পর এক বাস। একটি বাস যখন সমর্থকদের নিয়ে ফিরছিল, তখন চাঁদমারি মাঠের কাছে বাস লক্ষ্য করে ঢিল ছোড়া হয় বলে অভিযোগ। ঢিলের আঘাতে এক ব্যক্তির চোখ জখম হয়। এক মহিলার মাথায় ঢিল লাগে। এর পরেই বাসে থাকা বিজেপি কর্মীরা সিউড়ি থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। আহত সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন পুলিশ আধিকারিকরা।

এই ঘটনার প্রতিবাদে এবং দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিজেপি কর্মী, সমর্থকেরা বিক্ষোভ দেখান। তাঁদের অভিযোগ, মোদীর সফল সভা দেখে বুক কাঁপছে তৃণমূলের। তাই বিজেপি সমর্থকবোঝাই বাসে হামলা। এই ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

তৃণমূলের জেলা কোর কমিটির আহ্বায়ক বিকাশ রায়চৌধুরী বলেন, ‘‘তৃণমূল এ সব কাজ সমর্থন করে না। পুলিশ প্রশাসন ব্যাপারটি দেখুক। আইন আইনের পথে চলুক। যে অন্যায় করেছে, আইন তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করুক, এটাই আমরা চাই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE